প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা নভশ্চর হিসেবে, স্পেস স্টেশনে যাচ্ছেন জেনেট এপস

নাসায় লিখিত হল নতুন ইতিহাস। প্রথম মহিলা কৃষ্ণাঙ্গ নভশ্চর হিসাবে আন্তর্জাতিক স্পেসস্টেশনে যাচ্ছেন জেনেট এপস। নাসার আন্তর্জাতিক স্পেসস্টেশনে পৌঁছানোর নবতম প্রকল্প বোয়িং স্টারলাইনার-১ মিশনের জন্য সম্প্রতি বেছে নেওয়া হল তাঁর নাম।

এই মহাকাশ অভিযানের জন্য নাসা তোড়জোড় শুরু করেছিল ২০১৮ সাল থেকে। প্রাথমিক ভাবে প্রোজেক্টের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল সুনীতা উইলিয়ামস এবং জোশ কাসাডাকে। তাঁদের সঙ্গ দিতেই এবার সেই যাত্রায় সামিল হচ্ছেন জেনেট এপস-ও।

তবে এখনও নাসার সার্টিফিকেট পায়নি বোয়িং স্টারলাইনার মহাকাশযানটি। প্রথমে মানুষ ছাড়াই এই যানকে মহাকাশে পাঠাবে নাসা। সেখানে ইতিবাচক ফলাফল মিললে তবেই আগামী বছরে মোট সাতজনের ক্রু নিয়ে পাড়ি দেবে স্টারলাইনার-১।

পোস্ট গ্র্যাজুয়েট করার পর জেনেট এপস যুক্তরাষ্ট্রের একটি ল্যাবরেটরিতে কাজ করতেন। মাত্র দু’বছরেই বেশ কয়েকটি পেটেন্টের অধিকারী হয়েছিলেন তিনি। তাঁর প্রতিশ্রুতি সম্পন্ন গবেষণার জন্যই তাঁকে নিয়োগ করেছিল আমেরিকার ইন্টেলিজেন্স সংস্থা সিআইএ। ২০০২ থেকে দীর্ঘ সাত বছর এই সংস্থাতেই কাজ সামলেছেন এপস। তারপর ২০০৯ সালে নাসার অ্যাস্ট্রোনট ক্লাসে যোগদান করেন তিনি। তারপর থেকে এই আন্তর্জাতিক সংস্থায় বিভিন্ন গবেষণার সঙ্গে জড়িয়ে গেছে তাঁর নাম। ডক্টরেটও করেছেন এখান থেকেই। প্রকাশ করেছেন বেশ কিছু গবেষণাপত্রও।

আরও পড়ুন
নাসার প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ সদস্য মেরি জ্যাকসনের নামাঙ্কিত হচ্ছে ওয়াশিংটন হেড কোয়ার্টার

কিছুদিন আগেই জর্জ ফ্লয়েড মৃত্যু সারা বিশ্ব সাড়া ফেলে দিয়েছিল। কৃষ্ণাঙ্গ মানুষদের প্রতি অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে গর্জে উঠেছিলেন সারা পৃথিবীর মানুষ। জেনেটের মহাকাশযাত্রার টিকিট যেন সেই প্রতিবাদেরই সাফল্য। প্রথম মহিলা কৃষ্ণাঙ্গ গবেষকের নামে গত মাসেই হেডকোয়ার্টারের নামকরণ করেছিল নাসা। এবারেও নাসার এই উদ্যোগ আরও একবার মনে করিয়ে দিল, এই বদ্ধ মানসিকতাকে দূরে সরিয়ে ফেলার সময় এসেছে। জেনেটের এই সুসংবাদে ট্যুইটার শুভেচ্ছা জানান তাঁর আগাম সহযাত্রী সুনীতা উইলিয়ামস-ও...

আরও পড়ুন
মহাকাশের মধ্যেই সিনেমার শ্যুটিং, টম ক্রুজের আহ্বানে সাড়া দিল নাসা

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
শনির উপগ্রহ টাইটানে ‘ড্রাগনফ্লাই’ পাঠানোর পরিকল্পনা নাসা-র

More From Author See More

Latest News See More