আবর্জনা পরিষ্কার করছেন খোদ ‘স্পাইডারম্যান’, আশ্চর্য দৃশ্য ইন্দোনেশিয়ার রাস্তায়

বাস্তব জীবনে এই ‘স্পাইডারম্যান’ মাকড়সার মতো জাল ছুঁড়তে পারেন না। কিন্তু আজ তিনি সব জায়গায় সুপারহিরো। পোশাকের পেছনের মানুষটিই এই সবকিছুর ‘মাস্টারমাইন্ড’। রুডি হারতোনো। না, ইনি সত্তর-আশির দশকের সেই বিখ্যাত ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় নন। ইন্দোনেশিয়ার ৩৬ বছরের এই ক্যাফে কর্মী নোংরা পরিষ্কারের এই অভাবনীয় কৌশল বের করেছেন। প্রতিদিন ক্যাফেতে, মানে নিজের কাজে ঢোকার আগে আবর্জনা পরিষ্কার করতে নেমে পড়েন তিনি। পরনে স্পাইডারম্যানের পোশাক।

এরকম ভাবনা খুব বেশিদিনের নয়। অনেক আগে থেকেই জঞ্জাল পরিষ্কারের কাজটি করতেন রুডি। কিন্তু তখন এই পোশাক ছিল না। সাধারণ জামা কাপড় পরেই তিনি পরিষ্কার করতেন। কিন্তু কেউ তেমন নজর করত না। উৎসাহও দিত না। কিন্তু ইন্দোনেশিয়ার পরিস্থিতির নিরিখে এই উৎসাহটার আজ সত্যিই দরকার। যত দিন যাচ্ছে, দেশে বর্জ্যের পরিমাণ বেড়েই যাচ্ছে। তাতেই উদ্যোগ নিয়েছেন রুডি। যাতে আরও লোকের নজরে আসে, আরও লোক উৎসাহিত হয়, তার জন্যই নিজে স্পাইডারম্যান সেজেছেন তিনি। তাঁর এই অভিনব উদ্যোগের খবর ছড়িয়ে গেছে সব জায়গায়। সবাই এগিয়েও আসছে। এটাই তো চেয়েছিলেন রুডি হারতোনো।

স্পাইডারম্যানের মতো কমিক বুক সুপারহিরোরা নিজের ক্ষমতা দিয়ে সাধারণ মানুষ, সমাজের রক্ষা করে। রুডি হারতোনো’র মতো মানুষরা বাস্তবের সেই সুপারহিরো। যারা শুধু কথায় থেমে থাকে না। নিজে কাজ করে, অন্যান্যদেরও উৎসাহ দেয়। বাস্তবের ‘স্পাইডারম্যান’রা বোধহয় এভাবেই নীরবে কাজ করে যান…

More From Author See More

Latest News See More