প্রথম মহিলা সাঁতারু হিসাবে ৭ পদকজয় এমা ম্যাককিওনের

একই অলিম্পিকের আসরে সাত সাতটি পদক। এ যেন ঠিক স্বপ্নের মতোই। তবে টোকিও অলিম্পিকের আসরে এমনটাই সত্যি করে দেখালেন অস্ট্রেলিয় সাঁতারু এমা ম্যাককিওন। রবিবার বিগত দু’বারের মার্কিন চ্যাম্পিয়নকে হারিয়ে মহিলা বিভাগের ৪০০ মিটার রিলেতে স্বর্ণপদক জিতে নিলেন এমা। সেইসঙ্গে তৈরি হল এক নতুন ইতিহাস। কিংবদন্তি মাইকেল ফেল্পস কিংবা ম্যাক বিওন্ডিকে স্পর্শ করলেন অস্ট্রেলিয় তরুণী।

রবিবার ৪০০ মিটার রিলে-তে শুরু থেকেই এগিয়ে ছিল মার্কিন দল। তৃতীয় রাউন্ডে বাটারফ্লাই বিভাগে অনবদ্য পারফর্মেন্স মেলে ধরে ব্যবধান কমান এমা। শেষ রাউন্ডেও ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ম্যাজিক করেন কেট ক্যাম্পবেল। এনে দেন দলগত স্বর্ণপদক। টোকিও’র মঞ্চে এটিই সপ্তম পদকজয় ছিল এমার।

তবে এই প্রথম না। রবিবার রিলে সুইমিং-এ নামার আঘ ঘণ্টা আগে ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলেও সোনা নিশ্চিত করেন এমা ম্যাককিওন। বিশ্বজয়ী সুইডিস সুইমারকে হারিয়ে তৈরি করেন নতুন অলিম্পিক রেকর্ড। এই দুই বিভাগ ছাড়াও ফোর ইন্টু টু হানড্রেড মিটার এবং ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সোনা এনেছেন তিনি। সব মিলিয়ে এবার তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ৪টি স্বর্ণপদক ও ৩টি ব্রোঞ্জ পদক। 

১৯৫২ সালে পূর্ব জার্মানির মহিলা সাঁতারু ক্রিস্টিন অটো ৬টি পদক পেয়েছিলেন একই অলিম্পিকে। আমেরিকান সুইমার নাটালি কফলিন ২০০৮ সালে তাঁকে স্পর্শ করতে পারলেও, অধরা থেকে যায় নতুন ইতিহাস-রচনা। এবার প্রায় ৭০ বছর পর সেই রেকর্ডকে ছাপিয়ে গেল এমার সাফল্য। বিশ্বের প্রথম কোনো মহিলা সাঁতারু হিসাবে এই পালক জুড়ল তাঁর মুকুটে। কথায় আছে রেকর্ড গড়া হয় ভাঙার জন্যই। সেই প্রবাদবাক্যই যেন আরও একবার প্রমাণ করে দিলেন এমা ম্যাককিওন। 

আরও পড়ুন
অলিম্পিকের সুযোগ হাতছাড়া, তেভাগাই হয়ে উঠেছিল ইলা মিত্রের লড়াইয়ের ময়দান

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
অবশেষে প্রত্যাশপূরণ, অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয় পি ভি সিন্ধুর

More From Author See More

Latest News See More