অবশেষে প্রত্যাশপূরণ, অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয় পি ভি সিন্ধুর

সেমিফাইনালেই মুখোমুখি হতে হয়েছিল বিশ্বের ১ নম্বর ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় নামে পরিচিত তাই-জু-ইং-এর। সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করেও জিততে পারেননি সিন্ধু। কিন্তু পদকজয়ের সমস্ত স্বপ্ন তখনই শেষ হয়ে যায়নি। মীরাবাঈ চানুর পর আজ টোকিওর ময়দানে আবারও ভারতের নামে পদক তুলে নিলেন পি ভি সিন্ধু। চিনের প্রতিনিধি হে বিং জিয়াও-কে হারিয়ে মহিলাদের একক ব্যাডমিন্টনের ব্রোঞ্জ পদক পেলেন পি ভি সিন্ধু।

২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকে প্রথম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করাছিলেন সিন্ধু। তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ১ বছর। রিও অলিম্পিকেই রুপো জয় করেছিলেন সিন্ধু। সেই প্রথম ব্যাডমিন্টনে রুপো পেয়েছিল ভারত। একইভাবে টোকিও অলিম্পিকেও সিন্ধুকে নিয়ে স্বপ্ন বুনেছিলেন ভারতের ক্রীড়াপ্রেমী অসংখ্য মানুষ। কোয়ালিফিকেশন ম্যাচ থেকেই তাঁর ছন্দোবদ্ধ খেলা দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব স্বপ্ন হয়তো সত্যি হয় না। সেমিফাইনালে তাই হারতে হল সিন্ধুকে। কিন্তু পদকজয়ের শেষ সুযোগ হাতছাড়া করেননি।

২১-১৩ স্কোরে বিং জিয়াও-কে পরাজিত করলেন পি ভি সিন্ধু। শুরুটা টানটান হলেও ম্যাচের মাঝখানেই বোঝা গিয়েছিল কী হতে চলেছে। তবু শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সমানে পরিশ্রম করে গিয়েছেন সিন্ধু। নিজের সবটুকু উজাড় করে দেওয়াই যে তাঁর কাজ। হার-জিৎ তো খেলায় আছেই। ২০১৪ সালে এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জ পদকজয় দিয়ে শুরু সাফল্যের যাত্রা। তারপর রিও অলিম্পিকে ভারতের হয়ে রুপো জয় করে ইতিহাস সৃষ্টি। এরপর একে একে ২০১৮ সালের কমনওয়েলথ গেমস এবং ২০১৯ সালের ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয়। সাফল্যের এই যাত্রাকে থমকে যেতে দিলেন না টোকিও অলিম্পিকেও। সেইসঙ্গে পরপর দুটি অলিম্পিকে পদক জয় করে আবারও ইতিহাস গড়লেন তিনি। টোকিও অলিম্পিকে ভারতের দ্বিতীয় পদকপ্রাপ্তির খবরে উচ্ছ্বসিত সারা দেশ।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
‘হ্যাঁ, আমি সমকামী’, অলিম্পিকে সোনা জিতে গর্বিত উচ্চারণ টমের

More From Author See More