সত্যজিৎ-স্মরণে শর্টফিল্ম ফেস্টিভাল, আয়োজনে কলকাতার এক দল তরুণ চলচ্চিত্রকার

চলতি বছরেই শতবর্ষ পূর্ণ করলেন সত্যজিৎ রায়। আর সেই উপলক্ষেই কিংবদন্তি বাঙালি চলচ্চিত্রকারকে শ্রদ্ধা জানাতে এবার এক অভিনব উদ্যোগ নিলেন কলকাতার একদল তরুণ চলচ্চিত্রকার। কলকাতার বুকেই এক আস্ত চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করে ফেললেন তাঁরা। তবে এই উদ্যোগের অভিনবত্ব অন্য জায়গায়। কেবলমাত্র তরুণ চলচ্চিত্র পরিচালকদের ছবিরই স্ক্রিনিং হবে সেখানে।

অ্যাসপায়ারিং ইয়ুথ শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভাল। তরুণ পরিচালকদের প্ল্যাটফর্ম করে দেওয়ার কথা মাথায় রেখেই উৎসবের এমন নাম ঠিক করেছেন উদ্যোক্তারা। কিন্তু এই মহামারীর মধ্যে কোথায় আয়োজন হবে এমন চলচ্চিত্র উৎসব? না, কোনো সিনেমা হল নয়। বরং ইউটিউবেই প্রদর্শিত হবে এই উৎসবে নির্বাচিত ছবিগুলি। আর বাড়িতেই বসে বিনামূল্যেই তা দেখার সুযোগ পাবেন দর্শকরা। শুধু তাই নয়, সিনেমা জমা দেওয়ার ক্ষেত্রেও কোনো সাবমিশন ফি ধার্য করেননি আয়োজকরা। 

“গত মে মাসের ২২ তারিখ থেকে ৩১ তারিখ পর্যন্ত সিনেমা জমা দেওয়ার দিন ধার্য করা হয়েছিল। আমরা ভাবতেও পারিনি মাত্র দশদিনেই ১৪০-এর বেশি ছবি জমা পড়বে আমাদের কাছে। তার মধ্যে থেকেই বাছাই করে ২০টি ছবির স্ক্রিনিং হবে”, বলছিলেন উৎসবের অন্যতম উদ্যোক্তা সদস্য অনিকেত দাস। শুধু বাংলা কিংবা ভারতই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেই জমা পড়েছে একাধিক শর্টফিল্ম। নির্বাচিত সিনেমাগুলির মধ্যেও রয়েছে কঙ্গো, ফিলিপিন্স, বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের বিভিন্ন চলচ্চিত্র। 

চলতি মাসের ১৮ থেকে ২০ তারিখ পর্যন্ত চলবে এই চলচ্চিত্র উৎসব। প্রথম দু’দিন দেখানো হবে ১০টি করে চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্র উৎসবের আরেক আয়োজক সৃঞ্জন মজুমদার জানালেন, “সত্যজিৎ রায়কে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেই আমরা অনুষ্ঠানের সূচনা করছি। উৎসবের প্রথম সিনেমা হিসাবে প্রদর্শিত হবে সত্যজিৎ রায়ের তৈরি ‘টু’ শর্টফিল্মটি। তারপর একে একে বাকি ছবিগুলির স্ক্রিনিং হবে।” চলচ্চিত্র উৎসবের বিচারক হিসাবে রয়েছেন দেবলীনা মজুমদার, সব্যসাচী ব্যানার্জী ও সেঁজুতি দত্ত। ২০টির মধ্যে সেরা দশটি চলচ্চিত্রকে বেছে নেবেন বিচারকরা। তবে মহামারীর কারণে সম্ভব হচ্ছে না কোনোরকম পুরস্কারপ্রদান। ই-সার্টিফিকেটের মাধ্যমেই পরিচালকদের সম্মাননা জানানো হবে। 

আরও পড়ুন
কবিতা থেকে সিনেমা - সর্বত্রই নতুন ভাষা খুঁজেছেন বুদ্ধদেব

তাছাড়াও চলচ্চিত্র উৎসবের তৃতীয় তথা শেষ দিনে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের সঙ্গে কিংবদন্তিকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে একাধিক পরিকল্পনা রয়েছে আয়োজকদের। স্মারক বক্তৃতা রাখবেন তথ্যচিত্র নির্মাতা এবং অধ্যাপক শুভা দাস মল্লিক। সত্যজিৎকে উৎসর্গ করে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন সাম্যব্রত দাস। তাছাড়াও যন্ত্রসঙ্গীতের মাধ্যমে পরিবেশিত হবে সত্যজিতের বিভিন্ন চলচ্চিত্রের গান ও স্কোর। 

আরও পড়ুন
বিদেশি সিনেমা দেখলেই মৃত্যুদণ্ড! স্বৈরাচারের জাঁতাকলে উত্তর কোরিয়া

লকডাউন এবং ভাইরাসের সংক্রমণে এক বছরেরও বেশি সময় ধরেই থমকে রয়েছে চলচ্চিত্র জগৎ। তবে সিনেমার হাল ফেরাতে এবার অনলাইন মাধ্যমকে হাতিয়ার করে নিলেন রত্নদীপ রায়, সায়ান রায়, শুভজিৎ মহাজন, আদিব রাব্বানীর মতো তরুণ উদ্যোক্তারা। এই অভিনব উদ্যোগ শুধু যে দর্শকদেরই বিনোদন যোগাবে, তেমন না। বরং, তরুণ পরিচালকরাও তাঁদের সৃষ্টি পৌঁছে দিতে পারবেন সাধারণ মানুষের কাছে। এহেন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়…

আরও পড়ুন
কান চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশের সিনেমা

Powered by Froala Editor

More From Author See More