একা মেয়েকে বিদেশে পাঠাতে অসম্মত ক্রীড়া সংস্থা, স্বপ্নভঙ্গ তামিলনাড়ুর তরুণীর

সম্প্রতি শেষ হয়ে গেল টোকিও অলিম্পিক। এখনও অবধি ভারতের সবচেয়ে বেশি অলিম্পিক পদকজয়ের বছর ২০২১ সাল। সারা দেশজুড়ে তাই ক্রীড়াব্যক্তিত্বদের নিয়ে সরগরম আলোচনা। আর ঠিক এই সময় নিজের যোগ্যতা প্রমাণের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হতে চলেছেন ভারতেরই এক খেলোয়াড়। তামিলনাড়ুর বধির অ্যাথলিট সীমা বারুইন। চলতি মাসের শেষেই পোল্যান্ডে ওয়ার্ল্ড ডিফ অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু তাঁর নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া।

কেন? কারণ এই প্রতিযোগিতার জন্য ভারত থেকে মনোনীত খেলোয়াড়দের মধ্যে একমাত্র মহিলা সদস্য সীমা। আর বাকি পুরুষ প্রতিযোগীদের সঙ্গে একজনমাত্র মহিলার যাওয়া নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে সাই। হ্যাঁ, শুনতে আশ্চর্য লাগলেও একটি রাষ্ট্রীয় সংস্থার এমন পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতার জন্যই বিশ্বজয়ের মঞ্চ থেকে বাদ পড়তে চলেছেন এক ভারতীয়। ইতিমধ্যে বিষয়টি পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন সীমা এবং তাঁর পরিবার। কিন্তু সেই চিঠির কোনো উত্তর পাননি তাঁরা।

তামিলনাড়ুর কড়ায়ালুমডু গ্রামের ১৮ বছরের তরুণী সীমা। মাত্র ৬ বছর বয়সে হঠাৎ জ্বর আসে তাঁর। আর তারপর থেকেই শ্রবণ ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু খেলার মাঠকে যে ভালোবেসে ফেলেছেন সেই বয়সেই। আর পরিবারের কাছ থেকেও পেয়েছেন উৎসাহ। ছোট থেকেই জেলা ও রাজ্য স্তরের একাধিক লং জাম্প এবং দৌড়ের প্রতিযোগিতায় জিতে ফিরেছেন সীমা। অনেক খেলায় শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সক্ষম খেলোয়াড়দের সঙ্গেও প্রতিযোগিতা করতে হয়েছে। এরপর একে একে জাতীয় স্তরের বধিরদের জন্য আয়োজিত বিশেষ প্রতিযোগিতাতেও পদক জয় করেছেন সীমা। তবে জীবনের সবচেয়ে বড়ো সুযোগটা এল চলতি বছরের শুরুতে।

পোল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড ডিফ অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের মনোনয়নের জন্য পুণে শহরে অনুষ্ঠিত হল প্রস্তুতি ম্যাচ। সেখানে মহিলাদের লং জাম্প বিভাগে অংশ নিয়েছিলেন ১২ জন খেলোয়াড়। কিন্তু একমাত্র সীমাই ৫ মিটারের গণ্ডি টপকাতে পেরেছেন। ফলে নিয়ম অনুযায়ী তিনি একাই নির্বাচিত হলেন ভারতের প্রতিনিধি হিসাবে। গত কয়েক মাস ধরে তাই চলছিল বিশ্বজয়ের প্রস্তুতি। কিন্তু এর মধ্যেই সাইয়ের অদ্ভুত সিদ্ধান্তে অবাক সকলে। এদিকে কন্যাকুমারী লোকসভার সাংসদ ভি বিজয়কুমার কেন্দ্রের ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরকে হস্তক্ষেপের আর্জি জানিয়ে চিঠিও লিখেছেন। উত্তর আসেনি সাংসদের সেই চিঠিরও। এদিকে ১১ আগস্ট রওয়ানা হচ্ছে বাকি দল। ২৬-২৮ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে প্রতিযোগিতা। শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের সময়টুকুও কি আর আছে? সেটুকু হলেও নিজের সমস্তটা দিয়ে লড়াই করতে প্রস্তুত সীমা।

আরও পড়ুন
মাত্র ৫ জন প্রতিযোগী নিয়েই তিনটি পদক, অলিম্পিকজয়ী ক্ষুদ্রতম দেশের গল্প

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
অলিম্পিকে মশাল রিলের ভারতীয় প্রতিনিধি আজ চা-বাগানের কুলি

More From Author See More

Latest News See More