‘ডাইনোসর’-এর পেটের ভেতর মানুষের মৃতদেহ, মর্মান্তিক দৃশ্য স্পেনে

ছোট্ট শিশুকে নিয়ে পার্কে ঘুরতে গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সে-পার্কজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে বেশ কিছু ডাইনোসর মূর্তি। এমনই একটি মূর্তির সামনে দাঁড়াতেই দুর্গন্ধ টের পেয়েছিলেন দু’জনই। ব্যাপার কী? সন্তানকে মজা করেই তিনি বলেছিলেন, নিশ্চয়ই কোনো জ্যান্ত মানুষকে খেয়ে ফেলেছে ডাইনোসরটা। উৎসাহী হয়ে স্ট্যাচুটির ফাটলে চোখ রেখেই চমকে উঠেন তিনি। সত্যিই যে মূর্তির মধ্যে ঝুলছে পচা-গলা মানুষের দেহ!

এমনই অদ্ভুত ঘটনার সাক্ষী থাকল স্পেনের বার্সেলোনা। কলোমা ডি গ্রামানেটের সেই পার্কে ডাইনোসরের পেটের মধ্যে মৃতদেহ দেখেই কর্তৃপক্ষকে খবর দেওয়া হয় তৎক্ষণাৎ। তারপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। সনাক্ত করা হয় দেহটিকে। শুরু হয় তদন্তও। 

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে সপ্তাহ খানেক আগেই হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যান মৃত ব্যক্তি। তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে মিসিং ডায়েরিও জমা পড়েছিল থানায়। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও তাঁর সন্ধান দিতে ব্যর্থ হয় পুলিশ। শেষ পর্যন্ত তাঁর মৃতদেহ মিলল এভাবেই। গতকাল ঘটনাটি জানার পরেই পুলিশকে জানায় কর্তৃপক্ষ। ডাক পড়ে দমকল বাহিনীরও। তাঁরাই মূর্তিটি কেটে বার করে আনেন মৃতদেহটি। কিন্তু কীভাবে মারা গেলেন ওই ব্যক্তি? খুন করে কেউ তাঁর দেহ লুকিয়ে রেখেছিল ওই স্ট্যাচুর মধ্যে? 

না, তেমন কোনো চিহ্নই খুঁজে পায়নি পুলিশ। কোনো সন্দেহজনক কাজের সঙ্গেও কোনোরকম যোগসূত্রও নেই ওই ব্যক্তির। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান বলছে অন্য কথা। ডাইনোসরের মুখের মধ্যে দিয়ে ছবি তুলতে গিয়েই ভুলবশত ভেতরে মোবাইল ফোন পড়ে গিয়েছিল ওই ব্যক্তির। সেটিকে উদ্ধার করতেই ডাইনোসরের মুখে প্রবেশ করেন তিনি। তবে গলার কাছে আটকে যায় তাঁর পা। তারপর আর বেরোতে পারেননি তিনি। ঝুলন্ত অবস্থায় সেখানেই কয়েকদিন আটকে থাকার পর মৃত্যু হয় তাঁর। 

আরও পড়ুন
খুনের অভিযোগ, ছদ্মবেশে পলায়ন ও গ্রেপ্তার; সুশীল কুমারের ঘটনা যেন বলিউডি চিত্রনাট্য

কিন্তু দীর্ঘ এক সপ্তাহ সকলের চোখ এড়িয়ে গেল কীভাবে এমন একটি বিষয়? দুর্ঘটনার সময় কেউ তাঁকে সাহায্যের জন্যেও কি এগিয়ে আসেননি? পার্ক কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছে, মহামারীর কারণে ইদানীং পর্যটকদের সংখ্যা একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছে। তাঁদের অভিমত, দুর্ঘটনার সময় ওই ব্যক্তি হয়তো একাই ছিলেন পার্কে। তাই চিৎকার করেও সাড়া পাননি কারোর। কিন্তু এসবের পরেও জট কাটছে না রহস্যের। ময়নাতদন্তের ফলাফল হাতে আসার আগে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে কিছু বলতে রাজি নয় স্প্যানিশ পুলিশকর্তারা। তবে একথা অস্বীকার করার জায়গা নেই, এই ঘটনা সত্যিই মর্মান্তিক…

আরও পড়ুন
কোভিডের দ্বিতীয় তরঙ্গে মৃত্যু ৪০০-র বেশি চিকিৎসকের

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
একের পর এক খুন, জেল ভাঙার ‘কৃতিত্ব’; কেন আত্মসমর্পণ করলেন ‘বিকিনি কিলার’?

More From Author See More