ছবি বিক্রি করে ৫০ হাজার টাকা, দুঃস্থদের পাশে দাঁড়াতে চায় মাদুরাই-এর খুদে

গত ২৭ ডিসেম্বর ৭ বছরে পা দিয়েছে তামিলনাড়ুর মাদুরাই শহরের ঋতুন কুণাল। আর সেই অনুষ্ঠানের জন্যই আয়োজন করা হয়েছিল একটি প্রদর্শনী। শুধুই মাদুরাই শহর নয়, সামাজিক মাধ্যমের দৌলতে দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে পড়েছে সেই প্রদর্শনীর খবর। ৭ বছরের বালকের তুলির টানে অবাক সকলেই। হ্যাঁ, প্রদর্শনীতে প্রতিটা ছবি ঋতুনের নিজের হাতে আঁকা।

রঙের ব্যবহার সবসময় ব্যাকরণ মানেনি। শৈশবের কল্পনা মিলেমিশে গিয়েছে প্রতিটা ছবিতে। আর সেই কল্পনাই যেন ছবিগুলোকে আরও অসাধারণ করে তুলেছে। গত মার্চ মাস থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত নানা সময় বসে বসে ছবিগুলো এঁকেছে সে। এভাবেই কেটেছে লকডাউনের দীর্ঘ সময়। প্রদর্শনীর পাশাপাশি ছবিগুলো বিক্রির ব্যবস্থাও করা হয়েছে। ক্যানভাসের আয়তন অনূযায়ী কোনো ছবির দাম ২০০ তো কোনোটা ২০০০। সব মিলিয়ে ইতিমধ্যে ৫০ হাজার টাকার ছবি বিক্রি হয়েছে প্রদর্শনী থেকে। এমনকি ঋতুনের ছবি পাড়ি দিয়েছে লন্ডনেও। আর এই উপার্জিত টাকা দুঃস্থ পড়ুয়াদের পড়াশোনার জন্য দান করতে চায় ঋতুন। ছোট বালকের এই ইচ্ছা অবাক করেছে অনেককেই।

ছবি আঁকার কোনো প্রথাগত শিক্ষা নেই ঋতুনের। মা পৃথিকা গান্ধী কুণাল পেশায় চোখের ডাক্তার। তবে অবসর সময়ে তিনিও হাতে রং-তুলি তুলে নেন। মায়ের কাছেই একটু একটু করে ছবি আঁকা শেখা ঋতুনের। তবে ছেলের অপটু হাতে এমন অসাধারণ ছবি মাকেও অবাক করেছে। তার থেকেও অবাক করেছে ঋতুনের ইচ্ছা। অবশ্য এ-বিষয়ে সবরকম সাহায্য করতে প্রস্তুত তিনি। এভাবেই ছেলের মনের মধ্যে মানবতা বেঁচে থাকুক। এমনটাই চাইছেন পৃথিকা।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More