বিলবোর্ড আড়ালের ‘অপরাধে’ কাটা পড়ল বটগাছ, সরব পরিবেশকর্মীরা

অন্তত দুই দশক ধরে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে ছিল একটি বটগাছ। ব্যস্ত মুম্বাই শহরের বুকে এই এক টুকরো সবুজকে ঘিরে পাখিদের ব্যস্ত কোলাহল লেগেই থাকত। সাধারণ মানুষের কাছেও নির্মল নিঃশ্বাস নেওয়ার জায়গা। রাতারাতি সেই গাছ কেটে ফেলল কেউ বা কারা। তবে তার কারণও সহজেই বোঝা যায়। একটি বাণিজ্যিক বিলবোর্ড আড়াল করছিল গাছটি। আর তাই তাকে সরে যেতে হল রাস্তা থেকে।

এভাবে একটি পরিণত বটগাছ কাটা পড়ায় বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে মুম্বাই শহরে। সাধারণ মানুষ ও পরিবেশকর্মীদের দাবি মেনে পুলিশে রিপোর্ট করেছে বৃহন্মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন। আর পুলিশও ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। তবে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন অনেকে। আততায়ীরা গাছটি কেটে ফেলার আগে কি কিছুই জানা যায়নি? তাছাড়া ইতিমধ্যে রাস্তার ধারে বেশ কিছু গাছ কাটার বিষয়ে পৌরসভাও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতি চেয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে কোনো অনুমতি ছাড়াই গাছ কেটে ফেলা হয়েছে।

এই গাছটি কাটা পড়ায় রীতিমতো নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। তবে মুম্বাই শহরে এমন ঘটনা নতুন নয়। বিগত তিন বছরে শতাধিক গাছ বে-আইনি ভাবে কেটে ফেলা হয়েছে। অথচ অদ্ভুতভাবে এতদিন মুখ বন্ধ করে রেখছিল প্রশাসন। এবারে কিন্তু রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরেও গাছ কাটার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। আসলে সাধারণ মানুষের চাপেই প্রশাসন সচেতন হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই। এই সচেতনতা যদি আগামী দিনে সবুজ সংরক্ষণে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে, তাহলে তার থেকে খুশির খবর আর কিছুই হতে পারে না।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More