পৃথিবীর কনিষ্ঠতম প্রোগ্রামার হিসেবে গিনেস রেকর্ড ভারতীয় শিশুর

এখনও প্রাথমিক স্কুলের গণ্ডিই পার করা হয়নি তার। যে বয়সে সবে যোগ-বিয়োগ শেখার কথা, সেই বয়সেই অনায়াসে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং করে ফেলতে পারে সে। আর সে কারণেই মুকুটে চড়ল আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। আহমেদাবাদের ৬ বছরের শিশু আরহাম তালসানিয়া নাম তুলল গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস-এ। পৃথিবীর কনিষ্ঠতম প্রোগ্রামার হিসাবে রেকর্ড তৈরি করল ভারতীয় খুদে ডেভলপার।

ছোট থেকে এ বিষয়ে অবশ্য তার অনুপ্রেরণা ছিল বাবা ওম তালসানিয়াই। সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ায় বাড়িতে প্রায়শই প্রোগ্রামিংয়ের কাজ নিয়ে বসে থাকতে হত তাঁকে। বাবার কাজ দেখেই কোডিংয়ের প্রতি আকৃষ্ট হয় ছোট্ট আরহাম। দু’বছর বয়স থেকে নিজেই ট্যাবলেট ব্যবহার করত সে। আরেকটু জ্ঞান হওয়ার পরেই শুরু হল বাবার কাছেই প্রোগ্রামিংয়ের ক্লাস। তবে আশ্চর্যের বিষয় পাইথন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ আয়ত্ত করতে তেমন কোনো কষ্টই করতে হয়নি বছর তিনেকের আরহামকে।

তারপর ধীরে ধীরে ট্যাবলেটের পাশাপাশি ব্যবহার শুরু হয়েছিল আইওএস এবং উইন্ডোজ গ্যাজেটের। পাইথনকে কাজে লাগিয়েই ছোট-খাটো গেম, সফটওয়্যার তৈরি করত আরহাম। পরে তা পরিপূর্ণতা পায় আরও। কিছুদিন আগেই আরও এক সুযোগ এসেছিল মস্ত বড়। কঠিন সেই চ্যালেঞ্জকেও জয় করেছে আহমেদাবাদের শিশু প্রোগ্রামার। সফল হয়েছে মাইক্রোসফটের সার্টিফিকেশন পরীক্ষাতেও। 

আরহাম সবে এখন দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র। আর এখন থেকেই কার্যত নিজের চলার পথ ঠিক করে নিয়েছে আরহাম। পরবর্তীকালে কোনো প্রোগ্রামিং সংস্থায় কাজ করতে চায় না সে। বরং নিজেই একটি স্বতন্ত্র কোম্পানি তৈরি করতে চায় আরহাম। বিপ্লব আনতে চায় গেম, সফটওয়্যার, অ্যাপ এবং অপারেটিং সিস্টেমের জগতে। পাশাপাশি দরিদ্রদের পাশেও দাঁড়াতে চায় এই খুদে প্রোগ্রামার। ছোট্ট শিশুর এই দূরদর্শিতাতেই এখন মজে রয়েছেন নেটিজেনরা। কারণ আরহামের কার্যকলাপ এবং চিন্তাভাবনা শুধুই বিস্ময়কর নয়, তা অনুপ্রেরণা জোগানোর জন্যও যথেষ্ট...

আরও পড়ুন
বাড়ির অমতেও ছাড়েননি নেশা, ৩০০০ শব্দছক তৈরি করে রেকর্ড বাংলার ‘পাজল-ম্যান’-এর

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
মাথায় বিদ্যুৎ দিয়ে ‘হত্যা’, মিথ্যা অভিযোগে আমেরিকায় মৃত্যুদণ্ড হয়েছিল এই কৃষ্ণাঙ্গ বালকের

More From Author See More