ইংল্যান্ডে প্রথম প্রাইড ট্রেনের যাত্রা শুরু, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের ভিড়ে নতুন বার্তা

একটি ট্রেন, অসংখ্য কামরা জুড়ে জুড়ে একটি যান। তার মধ্যে রোজ যাতায়াত করেন কত না যাত্রী। আর সেইসব মানুষদের অস্তিত্বের সঙ্গে কোথায় গিয়ে যেন জড়িয়ে যায় ট্রেনের কামরাগুলিও। কিন্তু সমাজের নাগপাশে দম বন্ধ হয়ে আসা মানুষের মুক্তির স্বপ্নও কি কখনও মূর্ত হয়ে উঠতে পারে ট্রেনের চেহারায়? হ্যাঁ, পারে। অন্তত তেমনই এক ঘটনার সাক্ষী থাকল ইংল্যান্ডের লন্ডন এবং ম্যানচেস্টার শহর।

ট্রেনের গায়ে আঁকা সাত রঙের রামধনু। ঠিক যেন লিঙ্গসাম্য আন্দোলনের একটি পতাকা। এই ট্রেনের নাম ‘প্রাইড’। মঙ্গলবার লন্ডনের ইউস্টন থেকে ম্যাঞ্চেস্টারের পিকাডেলি স্টেশন পর্যন্ত যাত্রা করে এই ট্রেন। আর করোনা পরিস্থতিতে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখেও তাতে সওয়ার হয়েছিলেন অসংখ্য রূপান্তরকামী, সমকামী এবং ভিন্ন যৌনতার মানুষ।

ট্রেনের গায়ে সাত রঙের রামধনু ছাড়াও উঠে এসেছে বর্ণবৈষম্য-বিরোধী এবং জাতিবৈষম্য-বিরোধী বার্তাও। আর তাই স্থান পেয়েছে কালো এবং খয়েরি রং। সেইসঙ্গে সারা পৃথিবীতে প্রাইড আন্দোলনের খবরাখবর তুলে ধরত এই ট্রেনকে ব্যবহার করা হবে বলেও জানিয়েছেন উদ্যোক্তাদের একজন। প্রকল্পের ম্যানেজার পল অস্টিনের কথায়, এই ট্রেন দিয়ে যাত্রা শুরু হল। আগামী দিনে ইংল্যান্ডে এরকম বেশ কিছু প্রাইড ট্রেন চালু করার পরিকল্পনা তাঁদের আছে। সমাজকে বৈষম্য, হিংসা এবং বিদ্বেষ থেকে মুক্ত করতে এমন উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
কলকাতার বাসে চালু হচ্ছে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের জন্য সংরক্ষিত আসন

More From Author See More

Latest News See More