পুরুষ-মহিলার পাশাপাশি, থাকবে তৃতীয় লিঙ্গের অপশনও - ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের

দীর্ঘদিন ধরেই এমন দাবি উঠছিল বিভিন্ন মহল থেকে। কেন ফর্মে লিঙ্গ-পরিচয় হিসেবে শুধু পুরুষ ও মহিলার অপশন থাকবে? তৃতীয় লিঙ্গের কোনো জায়গা থাকবে না কেন? সেই দাবিই খানিকটা সার্থকতা পেল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক পদক্ষেপে। এখন থেকে, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় ভর্তির ফর্মে পুরুষ ও মহিলার পাশাপাশি আলাদা অপশন থাকবে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের জন্যও।

শুক্রবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী ব্যানার্জি এ-কথা জানান। তিনি বলেন, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের সব ভর্তির ফর্মে পুরুষ, মহিলা ব্যতিত তৃতীয় লিঙ্গের জন্য আলাদা অপশন দেওয়া থাকবে। ইউনিভার্সিটি গ্রান্ট কমিশন (UGC)-এর একটি নোটিসের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই নোটিসে বলা হয়েছে, মাননীয় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বিভিন্ন বৃত্তি ও ফেলোশিপের ক্ষেত্রে ট্রান্সজেন্ডারদের তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হোক। উপাচার্য এও জানান যে, বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে মাপকাঠি সমান হওয়া উচিত, সেখানে কোন ধরনের বৈষম্যকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত নয়।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ঐতিহাসিক পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন অনেকে। লিঙ্গভিত্তিক ভেদাভেদে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষজনকে দূরে ঠেলে রাখার প্রবণতা সামান্য হলেও কমাবে এই সিদ্ধান্ত। পাশাপাশি, সর্বস্তরের সমস্ত ফর্মেই চালু হোক এই ব্যবস্থা – এই দাবিও জোরালো হল খানিক।

More From Author See More

Latest News See More