টপস থেকে বাদ গেলেন স্বপ্না বর্মন, হতাশ বাংলার ক্রীড়াপ্রেমী মানুষ

এশিয়ান গেমসে হেপ্টাথলনে স্বর্ণপদকজয়ী বাংলার মেয়ে স্বপ্নাকে নিয়ে অলিম্পিকেও স্বপ্ন দেখেছিলেন অনেকে। শুধু এশিয়ান গেমসেই নয়, এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপেও রূপো জিতেছেন স্বপ্না। কিন্তু সেই সব আশাকে চূড়মার করে দিল স্পোর্টস ইন্ডিয়া অথোরিটির বর্তমান বিজ্ঞপ্তি। অলিম্পিক্স পোডিয়াম স্কিমের (টপস) আওতায় ৬টি খেলায় নির্বাচিত খেলোয়াড়দের তালিকা প্রকাশ করেছে সাই। আর তাতে হেপ্টাথলন বিভাগে নাম নেই স্বপ্না বর্মনের। সেইসঙ্গে নাম নেই অলিম্পিকে দুবারের পদকপজয়ী কুস্তিগির সুশীল কুমারেরও।

২০২০ এবং ২০২৪ অলিম্পিকে যেসব খেলোয়ারের কাছে পদক আশা করছে সাই, তাদের নিয়েই তৈরি হয়েছে টপস তালিকা। সেখানে স্বপ্না-সুশীলদের নাম না থাকায় বেশ চাঞ্চল্য শুরু হয়েছে। এমনকি দুর্নীতির অভিযোগও তুলেছেন অনেকে। তবে সাই কর্তারা জানিয়েছেন, বগত প্রতিযোগিতাগুলিতে প্রাপ্ত পয়েন্টের উপর ভিত্তি করেই তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। সেখানে স্বপ্নার স্কোর অনেক পিছনে। কিন্তু আগামীদিনে তার পারফর্মেন্সের উপর নজর রাখবে কর্তৃপক্ষ।

এই নিয়ে অবশ্য স্বপ্না মন খারাপ করে বসে নেই। তার কথায়, ২০১৭ সালে এশিয়ান গেমসে পদক জয়ের আগেও টপসে তার নাম ছিল না। আবারও নাম বাদ পড়েছে। কিন্তু আগামী দিনে নিজের ফলাফলেই যোগ্যতার পরিচয় দেবেন তিনি। তাঁর কোচ সুভাষ সরকারের কথাতেও, স্বপ্নার এখনও বেশ কিছু ক্ষেত্রে অনুশীলনের প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু আগামী দিনে সে আবার নিজেকে প্রমাণ করতে পারবে। আপাতত তাঁদের দুজনেরই লক্ষ ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক। সেই লক্ষকে সামনে রেখে সল্টলেক স্টেডিয়ামে শুরু হয়ে গিয়েছে প্রস্তুতি।

তবে এর পরেও স্বপ্নাকে বাদ দেওয়া নিয়ে বিতর্কের অবসান হয়নি। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, সাইয়ের এই তালিকা কতদূর স্বচ্ছ! বিশেষ করে ডোপিং-এর অভিযোগে বহিষ্কৃত জ্যাভলিন প্লেয়ার রোহিত যাদবের নাম থাকায় সেই বিতর্ক আরও দানা বেঁধে উঠেছে। তবে সব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে খেলার মাঠেই। আপাতত তাই নজর থাকবে টোকিও অলিম্পিকের দিকেই। কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতিতে সেই প্রতিযোগিতার ভবিষ্যতও অনিশ্চিত।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More

avcılar escortbahçeşehir escortdeneme bonusu veren sitelerbahis siteleri