প্রতিদিন গড়ে ৩৪ পড়ুয়ার আত্মহত্যা ভারতে!

কোভিড পরিস্থিতিতে বন্ধ ছিল স্কুল-কলেজ। ঘরবন্দি পড়ুয়াদের জীবনে বেড়েছে অবসাদ। পূর্ববর্তী বেশ কিছু সমীক্ষাতেই উঠে এসেছে এমন তথ্য। আর এবার আরও ভয়ঙ্কর তথ্য সামনে আনল কেন্দ্রীয় আত্মহত্যা সমীক্ষার রিপোর্ট। দেখা গিয়েছে, ২০২০ সালে দৈনিক গড়ে ৩৪ জন পড়ুয়া আত্মহত্যা (Students’ Suicide) করেছে। শুধু তাই নয়, গত ২৫ বছরের পরিসংখ্যানের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ। কোভিড পরিস্থিতিতে সার্বিকভাবেই আত্মহত্যার সংখ্যা বেড়েছে। তবে পড়ুয়াদের আত্মহত্যার সংখ্যা বেড়েছে সবচেয়ে বেশি।

কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০২০ সালে সারা দেশে ১২৫০০ জনের বেশি পড়ুয়া আত্মহত্যা করেছে। দৈনিক গড় হিসাবে সংখ্যাটা ৩৪ জনের আশেপাশে। এমনকি বেশ কিছু রাজ্যে দৈনিক গড় পড়ুয়া আত্মহত্যার সংখ্যা ১-এর চেয়ে বেশি। আর ২০১৯ সালের তুলনায় এই সংখ্যাটা বেড়েছে প্রায় ২১ শতাংশ। স্বাভাবিকভাবেই এর পিছনে অতিমারীর প্রভাবকে মুখ্য বলে মেনে নিয়েছেন সমীক্ষকরাও। দেখা গিয়েছে, তালিকায় প্রথম ৬টি রাজ্যেই মোট পড়ুয়া আত্মহত্যার প্রায় ৫৩ শতাংশ ঘটনা ঘটেছে। এই ৬টি রাজ্য যথাক্রমে – মহারাষ্ট্র, ওড়িশা, মধ্যপ্রদেশ, তামিলনাড়ু এবং কর্ণাটক। ৬৫৯৮ জন পড়ুয়া আত্মহত্যা করেছে ৬টি রাজ্য থেকে।

অবশ্য মনোবিদদের মতে, হঠাৎ কোনো অভিঘাত থেকেই আত্মহত্যার মতো সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয়। সার্বিকভাবে তাঁদের মানসিক স্বাস্থ্য আগে থেকেই ক্ষতিগ্রস্ত ছিল। কোভিড পরিস্থিতিতে সেটাই আরও বড়ো প্রভাব ফেলেছে। একদিকে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার কারণে বন্ধুদের সঙ্গে মেলামেশা নেই। ঘরবন্দি জীবনে অবসাদ বৃদ্ধি পাওয়া স্বাভাবিক। সেইসঙ্গে বদলে যাওয়া শিক্ষা মাধ্যমের কারণেও সমস্যায় পড়েছে অনেকে। অনলাইন পড়াশোনার সঙ্গে অভ্যস্থ হয়ে উঠতে পারেনি বহু পড়ুয়া। আবার তার মধ্যে অনেক পড়ুয়ার পারিবারিক অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ হয়েছে লকডাউনের কারণে। এই সমস্ত কারণই আত্মহত্যার সংখ্যা বাড়ার পিছনে দায়ী।

১৯৯৫ সাল থেকে দেশের আত্মহত্যার পরিসংখ্যান জানা যায়। এই ২৫ বছরে সারা দেশে ১.৮ লক্ষ পড়ুয়া আত্মহত্যা করেছে। একুশ শতকের শুরুর কয়েক বছর আত্মহত্যার সংখ্যা নিম্নমুখী থাকলেও আবার পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতি বছর। কিন্তু ২০২০ সালের পরিসংখ্যান সমস্তকিছুকেই হার মানায়। অতিমারীর ভয়াবহতা পেরিয়ে আবার খুলছে স্কুল-কলেজ। হয়তো আবারও সুস্থ জীবনে ফিরতে পারবে অনেক পড়ুয়া। কিন্তু এই বছর দেড়েকের মধ্যে যে জীবনগুলি ঝরে গেল, তাদের আর ফিরে পাওয়া যাবে না কোনোদিন।

আরও পড়ুন
প্রতিদিন আত্মহত্যার শিকার ২৯ জন কৃষক, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট এনসিআরবি’র

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
আত্মহত্যার চিন্তা সরিয়ে অন্যদেরও বাঁচার মন্ত্র দিচ্ছেন মনীষা

More From Author See More

Latest News See More