৫০ বছর পর ম্যাচের পুনরায়োজন, বিতর্কিত গোলের প্রায়শ্চিত্ত ব্রিটিশ ব্যক্তির

১৯৭২ সালের ১ সেপ্টম্বর। লন্ডনে (London) আয়োজিত হয়েছিল একটি বিশেষ ফুটবল ম্যাচ। স্কুল-পড়ুয়াদের নিয়ে যেমন ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন হয়ে থাকে হামেশাই। সেদিন সেন্ট পিটার্স স্কুলের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল গেটন প্রাইমারি স্কুল। জয় একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল সেন্ট পিটার্সের। তবে ম্যাচ শেষ হওয়ার ঠিক ১০ সেকেন্ড আগে বিতর্কিত গোলে সমতা ফেরায় গেটন প্রাইমারি স্কুল। ৫০ বছর পেরিয়ে আসার পর এবার ফের পুনরায়োজিত হল সেই ঐতিহাসিক ম্যাচ। নেপথ্যে সেদিনের খলনায়ক গ্রায়েম জোনস (Graeme Jones)। 

হ্যাঁ, অর্ধশতক আগে গ্রায়েমের চাতুরিই সমতা এনে দিয়েছিল গেটন প্রাইমারিকে (Gayton Primary School)। কর্নার থেকে ভেসে আসা বল নিশ্চিতভাবেই ধরে ফেলতে পারতেন বিপক্ষের গোলকিপার। তবে জটলার মধ্যে থেকে গ্রায়েম পিছন থেকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন তাঁকে। তবে বিষয়টি চোখ এড়িয়ে গিয়েছিল রেফারির। বিপক্ষের খেলোয়াড়রা সরব হলেও, রেফারির রায় যায় গেটন প্রাইমারির দিকেই। 

তবে সাময়িকভাবে এই জয় আনন্দ দিলেও, দীর্ঘদিন বিবেকের দংশনে ভুগেছেন গ্রায়েম। এমনকি চাকরি থেকে অবসরের পরেও শৈশবের এই স্মৃতিকে ভুলতে পারেননি প্রাক্তন রয়্যাল নেভির প্রশিক্ষক। ছোটোবেলার এই ভুল সংশোধনের জন্যই গতবছর থেকে উদ্যোগী হন গ্রায়েম। অর্ধশতক আগে হয়ে যাওয়া ম্যাচটির পুনরায়োজনের পরিকল্পনা করেন তিনি। তবে খুব কিছু সহজ ছিল না সেটা। 

পাঁচ দশকে সকলের জীবনই বদলে গেছে সম্পূর্ণভাবে। শৈশবের বন্ধুদের সঙ্গে কজনেরই বা যোগাযোগ থাকে আজীবন? গ্রায়েমের ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা হয়েছিল তেমনই। তবে হাল ছাড়েননি তিনি। দীর্ঘ দেড় বছর অনুসন্ধানের পর তিনি খুঁজে বার করেছিলেন সেদিনের ফুটবল ম্যাচের ২২ জন খেলোয়াড়কেই। তাঁদের নিয়েই গত শনিবার ২৮ আগস্ট পুনরায়োজিত হল সেই ঐতিহাসিক ম্যাচ। ফুটবলের মাঠে পঞ্চাশ বছর আগের মতোই দাপট দেখান সেন্ট পিটার্সের প্রবীণ খেলোয়াড়রা। ম্যাচের ফলাফল ৬-২। কাজেই এই ম্যাচ যে খুব একটা সুখকর হয়েছে গ্রায়েমের কাছে তেমনটা নয়। অবশ্য দীর্ঘদিনের জমে থাকা অপরাধবোধ থেকে মুক্তি পেয়ে খানিক স্বস্তিতে রয়েছেন তিনি। তাঁর কথায় এই লজ্জার হারই তাঁর ভুলের প্রায়শ্চিত্ত। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ৫০ বছর আগের সেই ম্যাচ এবং পুনরায়োজিত ম্যাচের ছবিও প্রকাশ করেন গ্রায়েম। স্বাভাবিকভাবেই তা সাড়া ফেলে দিয়েছে নেটিজেনদের মধ্যে।

আরও পড়ুন
লোকালে আর গ্লোবালে বাঙালির ফুটবল

স্কুল কিংবা ক্লাব স্তর তো বটেই, আন্তর্জাতিক ফুটবলেও বহুক্ষেত্রে রেফারির ভুল সিদ্ধান্ত কিংবা বিতর্কিত গোল বদলে দেয় ম্যাচের ফলাফল। আর সেই সিদ্ধান্তে যে-পক্ষের লাভ হয়, বেশ জোর গলাতেই ভুলকে সমর্থন করেন সে-দলের ফুটবল সমর্থকরা। সেখানে দাঁড়িয়ে ব্রিটিশ ব্যক্তির এই উদ্যোগ অনন্য নজির তৈরি করল ‘স্পোর্টিং স্পিরিট’-এর…

আরও পড়ুন
অলিম্পিকে ভারতের সেরা ফুটবল-অধিনায়ক, মাত্র ২৯-এই তুলে রাখেন বুটজোড়া

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
বিশ্বের প্রথম ‘ভেগান’ ফুটবল ক্লাব!

More From Author See More

Latest News See More