লকডাউনে আর্থিক অনটন, কলকাতায় আত্মহত্যার চেষ্টা মা সহ দুই ছেলের

লকডাউনে ভারতে বেকারত্ব পৌঁছেছিল শিখরে। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, আনলক পর্বের পর নিম্নমুখী সেই রেখাচিত্র। তবে দরিদ্রদের কি মিটেছে আর্থিক সমস্যা? এই প্রশ্নের মুখেই দাঁড় করাচ্ছে কলকাতার রিজেন্ট পার্ক থানার এক ঘটনা। আর্থিক অনটনের কারণেই আজ মা-সহ তাঁর দুই ছেলে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন।

রিজেন্ট পার্কের নিকটবর্তী সোনালী পার্ক এলাকায় ওই পরিবারের বসবাস। মায়ের বয়স ৬৭ বছর। দুই ছেলের বয়স যথাক্রমে ৪২ ও ৩৫ বছর। ওই ভদ্রমহিলা বাড়ি বাড়ি পরিচারিকার কাজ করতেন। ছোটো ছেলে বিশেষভাবে সক্ষম। বড় ছেলে ছিলেন আইনজীবীর সেরেস্তা। লকডাউনে হারিয়েছিল সেই কাজ। ধীরে ধীরে হারাচ্ছিল ও ভদ্রমহিলার কাজও। সামান্য যেটুকু আয় তা দিয়ে তিনজনের পেট চালানোই দায় হয়ে উঠেছিল তাঁর পক্ষে। তার ওপরেই ছোট ছেলের চিকিৎসার খরচ। অভাব ক্রমেই জাঁকিয়ে বসেছিল দরিদ্র পরিবারে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ মনে করছে আত্মহত্যার কারণ এই চরম অর্থাভাবই।

শুক্রবার সকালে ঘটে এই ঘটনা। তবে প্রতিবেশীরা অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তৎক্ষণাৎ হাসপাতালে ভর্তি করেন তাঁদের। খবর দেওয়া হয় পুলিশেও। বর্তমানে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন ওই তিনজন। প্রসঙ্গত আনলক পর্বের অনেকটাই সময় অতিবাহিত। এখনো এই সমস্যার মুখে অসহায় দরিদ্ররা। তার মধ্যে লকডাউন দীর্ঘ করা হয়েছে। কোথায় পৌঁছোবে এই অবস্থা? জানা নেই...

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
ভারতের প্রথম টেস্টটিউব বেবির জনক হয়েও পাননি স্বীকৃতি, অবসাদ-অপমানে আত্মহত্যা ডঃ সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের

More From Author See More

Latest News See More