মাত্র ১০ হাজার টাকায় কোল্ড স্টোরেজ, অভিনব আবিষ্কার কানপুর আইআইটির প্রাক্তনীর

ঠেলাগাড়ির ওপর বসানো রয়েছে সাদা কাপড়ে মোড়া একটা বাক্স। হাত পাঁচেক লম্বা। প্রস্থ প্রায় তিন ফুট। বাইরে থেকে দেখলে সাধারণ বাক্স বলেই ঠাহর করবেন যে কেউ। তবে আদতে এই বাক্সই কোল্ড স্টোরেজের (Cold Storage) ক্ষুদ্র সংস্করণ। হ্যাঁ, এবার এবার বাজারেও চলে এল এমনই অভিনব এক প্রযুক্তি। যার নেপথ্যে রয়েছে আইআইটি কানপুরের (IIT Kanpur) প্রাক্তনীদের প্রতিষ্ঠিত স্টার্টআপ।

ভারতের বাজারে প্রাপ্ত ক্ষুদ্রতম এই কোল্ডস্টোরেজ কানপুরের প্রাক্তন প্রযুক্তিবিদ্যার ছাত্র নিক্কি কুমার ঝা-এর (Nikky Jumar Jha) মস্তিষ্কপ্রসূত। সপ্তকৃষি সবজিকোঠি— এমনই নাম তার। আর সেখান থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায়, মূলত পচনশীল ফল এবং সবজির জন্যই বিশেষভাবে নির্মিত এই কোল্ড স্টোরেজটি। অবশ্য অন্যান্য খাদ্যপণ্যও হিমায়িত অবস্থায় রাখা যাবে বলেই জানাচ্ছেন আইআইটির প্রাক্তনী। 

তাপমাত্র নিয়ন্ত্রণের জন্য মূল ইথিলিন অক্সিডাইজিং পদ্ধতিকে ব্যবহার করেছেন কানপুরের প্রযুক্তিবিদরা। এই রাসায়নিক পদার্থের প্রভাব জীবাণুর বংশবিস্তারকে আটকাতে পারে অনায়াসেই। ফলে, পচনের সম্ভাবনা কমে যায় অনেকেই। পাশাপাশি ইনিলিনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট চরিত্রের কারণে ফল বা সবজি পেকে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকে না কোনো। অন্যদিকে কোল্ড স্টোরেজের মূল প্রকোষ্ঠে অক্সিজেন, কার্বন ডাই অক্সাইড এবং জলীয় বাষ্পের নির্দিষ্ট অনুপাত একটি পৃথক মাইক্রোক্লাইমেট তৈরি করে। পরীক্ষালব্ধ ফলাফল জানাচ্ছে, ৫ থেকে ৩০ দিন পর্যন্ত পচনশীল পণ্যকে সংরক্ষণে সক্ষম এই অভিনব প্রযুক্তি। 

আর খরচ? সাধারণত বিদ্যুতের মাধ্যমে চেম্বারের গ্যাসের সংকোচন ও প্রসারণের মাধ্যমে নির্ধারিত হয় কোল্ডস্টোরেজের তাপমাত্রা। এক্ষেত্রেও বিদ্যুৎবিনা অচল ‘সপ্তকৃষি’। তবে তা চলে ব্যাটারিতে। সারাদিন এই যন্ত্র চালিয়ে রাখতে খরচ হয় মাত্র ২০ ওয়াট বিদ্যুৎ। তাছাড়াও সৌরশক্তিতে এই যন্ত্র চালানোর বিকল্প সুবিধাও রয়েছে। পাশাপাশি যন্ত্রটির দামও দশ হাজারের মধ্যেই। ফলে, এই সাশ্রয়ী যন্ত্র দরিদ্র কৃষক কিংবা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরও সাধ্যের মধ্যে। 

আরও পড়ুন
হরিনামেই ছেড়েছে ভূত! আইআইটি-র অধ্যাপকের বক্তব্য ঘিরে বিতর্ক

পরিসংখ্যান বলছে, শুধু ক্রেতার অভাবে প্রতিদিন কয়েক লক্ষ টন খাদ্যদ্রব্য, বিশেষত কাঁচা শাকসবজি নষ্ট হয়ে যায় খুচরো বাজারে। ‘সপ্তকৃষি’-র ব্যবহার এবার ইতি টানতে চলেছে সেই ঘটনার। এককালীন খরচ হলেও, সার্বিকভাবে এতে লাভের মুখ দেখবেন কৃষকরা— এমনটাই অভিমত কানপুরের প্রাক্তন প্রযুক্তিবিদের…

আরও পড়ুন
বৃষ্টির জল থেকেই সরাসরি বিদ্যুৎ তৈরি, পথ দেখাচ্ছে দিল্লি আইআইটি

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
ঘূর্ণিঝড়ের ৫-৭ দিন আগেই পূর্বাভাস, দিশা দেখাচ্ছেন খড়গপুর আইআইটি’র গবেষকরা

More From Author See More

Latest News See More