আমফান-দুর্গতদের পাশে যাদবপুরের পড়ুয়ারা, সাক্ষাৎকার দিলেন নোয়াম চমস্কি

একটা সাইক্লোন বাংলার একটা অংশকে নাড়িয়ে রেখে দিল। করোনা ও লকডাউনের জেরে এমনিতেই সব বন্ধ; তার ওপর আমফান নামক অসুরের আক্রমণে দিশেহারা সবাই। কিন্তু যত সমস্যা, যত ভয়ংকর ঝড়ই আসুক না কেন, আমরা বাঁচতে ভুলিনি। জীবনের স্রোতে নিজেদের মতো করে শ্বাস নিয়েছি আমরা। হাজার হাজার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসছে মানুষই। সেই উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত হল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একদম পড়ুয়া। বর্তমান-প্রাক্তনী মিলে তাঁরা ডাক দিয়েছেন ঘরে ফেরার গানের। নিয়ে এসেছেন তাঁদের বিশেষ ই-পত্রিকা ‘হোম বাউন্ড : ঘরে ফেরার গান’।

গোটা ভারত আজ দাঁড়িয়ে আছে অদ্ভুত এক সন্ধিক্ষণে। এমনিতেই অর্থনীতির নিম্নগামী গতিতে ধুঁকছিল সবটা। সেই সঙ্গেই জোরালো আঘাত হানল করোনা ভাইরাস। লকডাউন চিনিয়ে দিল পরিযায়ী শ্রমিকদের অসহায় অবস্থা। চিনিয়ে দিল বেকারত্ব, মন্দা। ধুঁকতে থাকা সমাজ আরও বসে গেল। সেই সঙ্গে জুড়ল দু’দুটো ঘূর্ণিঝড়; তার মধ্যে একটি, অর্থাৎ আমফান কিনা শতাব্দীর প্রথম ও অন্যতম ভয়ংকর সুপার সাইক্লোন। হানা দিল পঙ্গপাল। ধ্বংসস্তূপের এই দেশের ছবিটা তুলে ধরতেই এই পত্রিকার আয়োজন করছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা। সঙ্গে উঠে আসবে ঘুরে দাঁড়ানোর মন্ত্র, ‘উই শ্যাল ওভারকাম’…

কেবলমাত্র একটি ম্যাগাজিন বানাতেই চাননি এই পড়ুয়ারা। আমফান দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো তো বটেই, সেইসঙ্গে চেয়েছেন আমাদের চারপাশটাকে ধরতে। সমাজের প্রতিটা স্তরে, প্রতিটা খোলসে যে ঘটনা ঘটে চলেছে, তারই একটি ডকুমেন্টেশন হিসেবে তৈরি করতে চেয়েছেন এই পত্রিকাকে। সেখানে যেমন আছে সুন্দরবন, তেমনই আছে এলজিবিটি আন্দোলন, ক্রমশ বেড়ে চলা গৃহ বিবাদ, সামাজিক কর্মী ও বুদ্ধিজীবীদের গ্রেফতার ইত্যাদি নানা বিষয়। আর এই বৈচিত্র্যই একটা বিশ্বকে হাজির করেছে আমাদের সামনে।

‘হোম বাউন্ড : ঘরে ফেরার গান’ মূলত বাংলা ই-পত্রিকা হলেও অন্য ভাষাও থাকছে এখানে। এই উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন অনেকে। তাঁদের মধ্যে আছেন কবীর সুমন, নন্দনা দেবসেন, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, মৈত্রীশ ঘটক, সুমন্ত্র সেনগুপ্ত, কৌশিক মুখার্জি (কিউ), অর্ণা শীল, দেবেশ চট্টোপাধ্যায়, অর্ক মুখার্জি প্রমুখ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা। থাকছে নবীন-প্রবীণ কবি, সাহিত্যিকদের লেখাও। তবে এই পত্রিকার বিশেষ আকর্ষণ হলেন নোয়াম চমস্কি। যাকে মডার্ন লিংগুইস্টিকের জনক বলা হয়। চমস্কির পরিচয় আর নতুন করে দেওয়ার কিছু নেই। এই পত্রিকায় থাকছে তাঁরই বিশেষ সাক্ষাৎকার। সম্ভবত কোনো বাংলা ম্যাগাজিনে প্রথমবার সাক্ষাৎকার দিলেন তিনি।

এই সময় শুধু ভারত নয়, গোটা বিশ্ব উত্তাল নানা ঘটনায়। নানা মতবাদ উঠে আসছে সমাজ থেকে। সেই সমাজ, সময় এবং বিশ্বকে নিয়ে আলোচনা করেছেন চমস্কি। দক্ষিণ এশিয়ার বর্তমান পরিস্থিতি ও চিন আধিপত্য নিয়ে তিনি বলেছেন, “দক্ষিণ এশিয়া অদূর ভবিষ্যতে গুরুতর বিপদের সামনে দাঁড়িয়ে আছে, এবং যদি নিজেরা নিজেদের সহযোগিতা না করে এসবের সম্মুখীন হয় তাহলে ভবিষ্যৎ অন্ধকার। এখন যেভাবে চলছে সেভাবেই এগোতে থাকলে অদূর ভবিষ্যতে দক্ষিণ এশিয়া হয়তো বাসের অযোগ্য হয়ে উঠবে উষ্ণায়ণের কারণে।” শুধু কি পরিবেশ সমস্যা? ক্রমশ বেড়ে চলা পুঁজির লোভ, জনপ্রিয়তাবাদের থাবাও তো সবকিছুতে জাঁকিয়ে বসছে। সেটাও এখানে উল্লেখ করেছেন চমস্কি। তুলে এনেছেন ট্রাম্পের প্রসঙ্গ। চমস্কির দৃপ্ত কণ্ঠ প্রতিবাদ জানিয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সাম্প্রতিক বেশ কিছু পদক্ষেপ ও সরকারের ভূমিকাকেও। ভারত-পাকিস্তান পরিস্থিতি নিয়েও ভাবিত তিনি। ঠিক কী বলেছেন, জানতে চোখ রাখতেই হবে ‘হোম বাউন্ড : ঘরে ফেরার গান’-এ।

আরও পড়ুন
দেশ-বিদেশের ক্রীড়াব্যক্তিত্বদের নিয়ে সুন্দরবন আর বইপাড়ার পাশে 'বাইচ'

উল্লেখ্য, এই পত্রিকা থেকে যা অর্থ আসবে, তার পুরোটাই চলে যাবে আমফান দুর্গতদের কাছে। যাতে তাঁরা আবার ফিরে আসতে পারেন স্বাভাবিক জীবনে। এটি মূলত ই-পত্রিকা, এবং এর ন্যুনতম মূল্য রাখা হয়েছে একশো টাকা। কীভাবে পাঠাবেন, সেই তথ্য রইল নিচে— 

For INDIA,
GPay | Paytm | PhonePe: 9477432120 (Pratyush)
UPI: p.barua97@oksbi

Account Holder: PRATYUSH BARUA (SBI)
Account number: 37939107795
IFSC: SBIN0012373
Branch: DUM DUM ROAD

GPay | Paytm | PhonePe: 9674426869 (Ayan)
UPI: ayansmahapatra@okaxis

For USA,
PAYPAL to soham.juetce@gmail.com
VENMO to mukherjee-126

For CANADA,
INTERAC e-transfer to souryasengupta11@gmail.com
PAYPAL to s28sengu@uwaterloo.ca


পেমেন্ট পেজের একটি স্ক্রিনশট নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ অথবা মেসেঞ্জারে পাঠিয়ে দিন: Chirayata Bhattacharyya (+91-9674604148)
অথবা মেল করুন ghworepherargaan@gmail.com  

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More