বয়স ১৮, শরীর ১৪৪ বছরের! বিরল ‘বেঞ্জামিন বটন’ রোগে প্রয়াত ব্রিটিশ কিশোরী

কথায় আমরা অনেক সময়ই বলে থাকি, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে কমছে বয়স। সত্যিই কি হতে পারে তেমনটা? ধরুন, কোনো ব্যক্তি জন্মই নিল বৃদ্ধাবস্থায়। আর তাঁর মৃত্যু হল শিশুর চেহারায়। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন ব্র্যাড পিট অভিনীত ‘দ্য কিউরিয়াস কেস অফ বেঞ্জামিন বটন’ সিনেমার কথাই বলছি। তবে এই গল্প একেবারেই আজগুবি নয়। ‘বেঞ্জামিন বটন’ আদতেই এমন একটি বিরল রোগ, যেখানে মানুষের বয়ঃবৃদ্ধি স্বাভাবিক হিসাব মেনে হয় না।

সম্প্রতি এমনই এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল যুক্তরাজ্যের সাসেক্সে। বিরল এই রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হল পশ্চিম সাসেক্সের কিশোরী অ্যাসান্টি স্মিথ। বয়স হয়েছিল মাত্র ১৮ বছর। যদিও খাতায় কলমে এই বয়স হলেও, তার দেহের বাস্তব বয়স প্রায় ১৪৪ বছর! শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই সত্যি।

অ্যাসান্টি আক্রান্ত হয়েছিল দুরারোগ্য হাচিনসন-গিলফোর্ড প্রজেরিয়া সিন্ড্রোমে। যা বেঞ্জামিন বটন রোগেরই একটি বিশেষ প্রকার। চিকিৎসকরা পরীক্ষার মাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তার বয়োঃবৃদ্ধির গতি স্বাভাবিকের তুলনায় প্রায় আট গুণ। অর্থাৎ, জীবদ্দশায় তার এক বছর একজনও সাধারণ মানুষের জীবনের আট বছর সময়সীমার সমতুল্য। আর সেই হিসাব অনুযায়ীই অষ্টাদশী অ্যাসান্টির বয়স হয়েছিল ১৪৪ বছর।

নিজের এই অসুস্থতার ব্যাপারে সম্পূর্ণ অবগত ছিল ব্রিটিশ কিশোরী। জানত, অনিয়মিত বয়োঃবৃদ্ধির কারণে দ্রুত পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হবে তাঁকে। তবে সময় ফুরিয়ে আসার পূর্বাভাস পাওয়ার পরেও, বিন্দুমাত্রও বিচলিত ছিল না সে। বরং, এই স্বল্প সময়কেই নিজের মতো করে উদযাপন করেছে। শুধু নিজেই যে হাসিখুশি থাকতে পছন্দ করত, তা নয়; চারপাশের মানুষগুলোকেও মুগ্ধ করত তার ইতিবাচক চিন্তাভাবনা, রসবোধ। তবে শেষের দিকে হৃদরোগ ছাড়াও একাধিক বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিল অ্যাসান্টি। চিকিৎসকরা আপ্রাণ চেষ্টা চালালেও শেষ অবধি লাভ হল না কোনো। 

আরও পড়ুন
বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসাবে বিরল ‘অলিম্পিক’ পুরস্কার পাচ্ছেন এক বাঙালি

‘অকালপ্রয়াত’ কিশোরীকে বিদায়বেলায় যোগ্য সম্মান দিতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে তার পরিবার। সদাহাস্যময়ীর পছন্দ অনুসারে ডিস্কো লাইট সাজিয়েই বিদায় জানানো হবে তাকে। কফিন সাজানো হবে সঙ্গীতদল ‘বিটিএস’-এর কভার ফটোয়। রাখা হবে প্রাইড ফ্ল্যাগও! আসলে মৃত্যুর আগে থেকেই সমস্ত পরিকল্পনা করে গিয়েছিলেন অ্যাসান্টি। এ ঘটনাকে মর্মান্তিক বললেও বোধ হয় কম বলা হয়!

আরও পড়ুন
মুমূর্ষু রোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ, সংকটকালে ভরসা দিল্লির তরুণরাই

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
কোভিডের দৌলতে সুফল আসবে অন্যান্য রোগের চিকিৎসাতেও, জানাচ্ছেন গবেষকরা

More From Author See More

Latest News See More