স্কুল খুলতেই ছড়াল করোনা; অন্ধ্রে ছাত্রছাত্রী-শিক্ষক মিলিয়ে আক্রান্ত ১৪০০

আনলক-৫ পর্বের হাত ধরেই ধীরে ধীরে সচল হচ্ছে বন্ধ থাকা বিভাগগুলিও। একদিকে যেমন দেশের কিছু অঞ্চলে শুরু হয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা, তেমনই শিক্ষাতেও এসেছে গতি। গত ২ নভেম্বর থেকেই খুলে গিয়েছিল অন্ধ্রপ্রদেশের স্কুল। তবে চারদিন স্কুল চলার পরেই জটিল পরিস্থিতির সম্মুখীন হল দক্ষিণের রাজ্য। আক্রান্ত হলেন ৮২৯ জন শিক্ষক এবং ৫৭৫ জন পড়ুয়া।

অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, শুধুমাত্র নবম ও দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিয়েই শুরু হবে স্কুল। চলবে সপ্তাহে তিনদিন করে। সেই হিসাব নিয়েই ১.৮৯ লক্ষ সরকারি শিক্ষকদের মধ্যে ৭০,৭৯০ জন শিক্ষক নিয়েই শুরু হয়েছিল পঠনপাঠন। ক্লাস শুরু করেছিল ৯৫,৭৬৩ জন ছাত্রছাত্রী। তবে শুরুতেই বড়ো ধাক্কা খেল অন্ধ্রের সেই পরিকল্পনা।

এখনও অবধি পূর্ব গোদাবরী জেলায় আক্রান্ত শিক্ষকদের সংখ্যা সবথেকে বেশি। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১৭২ জন শিক্ষক। স্কুল খোলার প্রাক্কালেই সকল শিক্ষকদের কোভিডের পরীক্ষা করানো হয়েছিল বলে জানায় রাজ্যের শিক্ষা পর্ষদ। তবে স্কুল খোলার পরে আসে সেই পরীক্ষার রিপোর্ট।

কিন্তু এই চাঞ্চল্যকর পরিসংখ্যানের পরেও বিচলিত নয় অন্ধ্র সরকার। স্কুল শিক্ষার কমিশনার ভি ভিরাভাদ্রুর মতে, সংক্রমণের হার শিক্ষকদের ক্ষেত্রে ১ শতাংশও নয়। ছাত্রদের ক্ষেত্রে তা ০.৬ শতাংশ। কাজেই চিন্তার কিছুই নেই, এমনটাই দাবি তাঁর। কিন্তু বাস্তবেই কি তাই? উঠছে এই প্রশ্নই। গত জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রে স্কুল খোলার পরেও সংক্রমণের জন্য পুনরায় বন্ধ হয়েছিল পঠনপাঠন। আইসিএমআরও সতর্ক করেছিল শিশু, কিশোররাই হতে পারে কোভিডের সুপার-স্প্রেডার। তবে তারপরেও কেন টনক নড়ছে না অন্ধ্র সরকারের, বিস্ময় সেখানেই।

তবে অন্ধ্রপ্রদেশ শিক্ষামন্ত্রকের দাবি, অনলাইন ক্লাসের সুবিধা না পাওয়ায় পড়াশোনা বন্ধ রয়েছে বহু পড়ুয়াদেরই। বিশেষ করে তাদের জন্যই এই উদ্যোগ। সেদিক থেকে দেখতে গেলে ক্লাসের বিকল্প নেই সত্যিই। কিন্তু সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়লেও, স্কুল খোলাই একমাত্র সমাধান হতে পারে না সেটার।

পরিস্থিতির পর্যবেক্ষণ করে বদলানো হবে স্কুলের গাইডলাইন, এমনটাই আশ্বাস দিয়েছেন অন্ধ্রের শিক্ষামন্ত্রী। তবে প্রায় ১ লক্ষ শিক্ষার্থীদের নিয়ে ক্লাস হলেও সেই সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়াবে ৪ লক্ষে। কারণ মোট ৯.৭৫ লক্ষ আবেদন জমা পড়েছিল নবম ও দশম শ্রেণীর মধ্যে। স্কুল খোলা থাকলে এই বিপুল পরিমাণ ছাত্রদের কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে অন্ধ্র প্রশাসন, তা নিয়েই এখন শুরু হয়েছে জল্পনা...

আরও পড়ুন
পাঁচ মাস পর করোনামুক্ত অস্ট্রেলিয়া, সংক্রমণের দ্বিতীয় তরঙ্গের দিনেও নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More