সূর্যের ‘সি-এন-ও’ চক্র থেকেই নির্গত হয় নিউট্রিনো কণা, অবশেষে মিলল প্রমাণ

সৌরজগতের কেন্দ্রের প্রজ্বলিত অগ্নিগোলকই পৃথিবীর শক্তির উৎস। সূর্য। আমাদের সব থেকে কাছের নক্ষত্রের ভিতরেও লুকিয়ে রয়েছে অসংখ্য রহস্য। তার ভেতরেই ঘটে চলেছে অবিরাম নিউক্লিয় সংযোজন বিক্রিয়া। মূলত দু’ধরণের নিউক্লিয় বিক্রিয়া ঘটছে সূর্যের মধ্যে। এর তাত্ত্বিক বিশ্লেষণ থাকলেও তার প্রমান পাওয়া বেশ খানিকটা দুঃসাধ্যই ছিল। এবার বিজ্ঞানের দৌলতে সামনে এল সেই প্রমাণ। সূর্য থেকে নির্গত দুর্বল নিউট্রিনো শনাক্তকরণের মধ্যে দিয়ে সমাধান মিলল রহস্যের।

হিলিয়াম আর হাইড্রোজেনের সংযোজন ছাড়াও নক্ষত্রের মধ্যে আরও এক ধরণের সংযোজন বিক্রিয়া হয়। ‘সি-এন-ও’ চক্র নামে পরিচিত এই বিক্রিয়ায় অংশ নেয় কার্বন, নাইট্রোজেন এবং অক্সিজেন। কিন্তু কতভাগ শক্তি সরবরাহ করে এই ‘সি-এন-ও’ চক্র? জানা ছিল না উত্তর।

এই উত্তর খুঁজতেই ১৯৯০ সালে শুরু হয়েছিল গবেষণা। ইতালির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর নিউক্লিয়ার ফিজিক্সে তৈরি করা হয়েছিল আলট্রাসেনসিটিভ বোরেক্সিনো ডিটেক্টর। কিন্তু এর কাজ কী? সূর্য এবং অন্যান্য নক্ষত্র থেকেও ক্রমাগত নির্গত হয়ে চলেছে নিউট্রিনো নামক একটি কণা। যার উৎপত্তি নিউক্লিয় বিক্রিয়া থেকেই। তবে সি-এন-ও চক্রে তৈরি নিউট্রিনো কণারা সাধারণত অত্যন্ত ক্ষণস্থায়ী এবং ক্ষীণ হয়। যার কারণে এতদিন তাত্ত্বিক ও গাণিতিকভাবে তাদের অস্তিত্ব বোঝা সম্ভব হলেও, শনাক্ত করা যায়নি।

অপেক্ষা করতে হল প্রায় তিন দশক। অত্যাধুনিক বোরেক্সিনো ডিটেক্টরই সম্প্রতি দেখালো সেই ক্ষীণ নিউট্রিনোদের অস্তিত্ব। জানান দিল সূর্যের মোট নিউক্লিয় বিক্রিয়ার ৯৯ শতাংশের জন্য দায়ী পি-পি চক্র (হাইড্রোজেন-হাইড্রোজেন সংযোজন)। অন্যদিকে মাত্র ১ শতাংশ ‘সি-এন-ও’ চক্রের বিক্রিয়া ঘটে সূর্যে। 

পাশাপাশি সামনে এল আরও একটি তথ্য। যেসব নক্ষত্রের কেন্দ্রীয় তাপমাত্রা ২ কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাদের মধ্যে প্রাধান্য দেখা যায় ‘সি-এন-ও’ চক্রেরই। তবে সূর্যের কেন্দ্রের তাপমাত্রা ১.৫ কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াস হওয়ার দরুন সেই সম্ভাবনাই কমে এসে দাঁড়িয়েছে মাত্র ১ শতাংশে। 

মহাকাশবিজ্ঞানের এক নতুন দিগন্ত খুলে গেল এই আবিষ্কারের মধ্যে দিয়ে, এমনটাই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। বোরেক্সিনো ডিটেক্টরের মাধ্যমে নিকটবর্তী মহাজাগতিক বস্তুগুলির বিশ্লেষণ আরও সহজ হবে বলেই ধারণা তাঁদের। পাশাপাশি এই ডিটেক্টর আগে থেকেই জানান দেবে মহাবিশ্বে ঘটতে চলা কোনো সুপারনোভার ব্যাপারেও। নিউট্রিনোর স্রোত চিহ্নিত করে জানিয়ে দেবে তাঁর প্রকৃত কারণও...

আরও পড়ুন
চাষের জমি থেকে উদ্ধার প্রাচীন সূর্যমূর্তি, চাঞ্চল্য অন্ধ্রপ্রদেশে

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More