সব ফর্ম্যাটের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা মালিঙ্গার

৪০ ওভার পেরিয়ে গেছে ম্যাচের। স্লগওভারে বিপক্ষের রান সীমিত করাই তখন একমাত্র লক্ষ্য। এমন একটা সময়েই উইকেটের দিকে রানআপ নিতে দেখা যেত সোনালি ঝাঁকড়া চুলের ছেলেটিকে। তারপর যেন ঝড় উঠত ২২ গজে। একের পর এক ইয়র্কারে কেঁপে উঠত বিপক্ষ দুর্গের ভিত। হ্যাঁ, শ্রীলঙ্কার অন্যতম ঘাতক ফাস্ট বোলার লসিথ মালিঙ্গার (Lasith Malinga) কথাই হচ্ছে। ক্রিকেটের ময়দানকে এবার চিরতরে বিদায় জানালেন মালিঙ্গা।

সম্প্রতি, নিজের ইউটিউব চ্যানেল টি-২০ কেরিয়ারের সমস্ত উইকেট শিকারের একটি ভিডিও পোস্ট করেন মালিঙ্গা। সেই ভিডিও-র সঙ্গেই অবসরের কথা ঘোষণা করেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি পেসার। 

এর আগেই টেস্ট ও ওয়ান-ডে ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন মালিঙ্গা। শ্রীলঙ্কার জার্সিতে তাঁকে শেষ দেখা গিয়েছিল ২০২০ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। তারপরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে নিঃশব্দে বিদায় জানিয়েছিলেন তিনি। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে তারপরেও বজায় ছিল তাঁর দাপট। আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অন্যতম হাতিয়ার ছিলেন মালিঙ্গা। গত বছর মুম্বাইয়ের দল গঠনের সময়ই, তাঁকে দলে না রাখার জন্য অনুরোধ করেছিলেন তিনি। কিন্তু তার কয়েক মাসের মধ্যেই যে তিনি সব ফর্ম্যাটের ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়াবেন, তা কে-ই বা জানত।

দিনটা ছিল ২০০৪ সালের ১ জুলাই। দেশের জার্সিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথমবার বাইশ গজে নামতে দেখা গিয়েছিল মালিঙ্গাকে। প্রথম টেস্ট ম্যাচেই ক্রিকেট-বিশ্বের সবথেকে শক্তিধর দেশের বিরুদ্ধে ৬টি উইকেট নিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশনের তরুণ পেসার। তারপর যত দিন গেছে তত ক্ষুরধার হয়েছে তাঁর বলের গতি। বেড়েছে উইকেট খিদেও। 

আরও পড়ুন
মাঠে ফেরা ‘দিবাস্বপ্ন’, প্রাণভয়ে লুকিয়ে আফগান মহিলা ক্রিকেটাররা

১৭ বছরের ক্রিকেট কেরিয়ারে টেস্ট ক্রিকেটে মালিঙ্গার সংগ্রহ ১০১টি উইকেট। ওয়ান-ডে এবং টি-২০তে যথাক্রমে ৩৩৮ ও ১০৭টি উইকেট শিকার করেছেন শ্রীলঙ্কার ঘাতক ফাস্ট বোলার। ২০১৪ সালে তাঁর নেতৃত্বেই টি-২০ বিশ্বকাপ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা। তবে মালিঙ্গা সর্বাধিক সাফল্য পেয়েছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটেই। মাত্র ৮৪টি ম্যাচে তাঁর গতির কাছে ব্যাটসম্যানরা বশ্যতা স্বীকার করেছেন ২৫৭ বার। 

আরও পড়ুন
চাকরি নেই, ইঁটভাটায় দিনমজুরি করছেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার!

তবে গত বছর দলের জার্সিতে শেষ টি-২০ বিশ্বকাপ খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন মালিঙ্গা। কিন্তু ভাগ্য যেন সায় দিল না মালিঙ্গার। কোভিড পরিস্থিতির জন্য পিছিয়ে গিয়েছিল বিশ্বকাপের সূচি। আগামী মাস থেকেই শুরু হতে চলেছে ক্রিকেটের সেই মহারণ। তার ঠিক আগেই সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ালেন মালিঙ্গা। তবে ক্রিকেট পিচ থেকে সরে দাঁড়ালেও, খেলার সঙ্গে যে একেবারে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে না তাঁর, সেই ইঙ্গিতও দিয়ে রেখেছেন মালিঙ্গা। কোন ভূমিকায় ফের প্রত্যাবর্তন করতে চলেছেন তিনি, এখন সেটাই দেখার…

আরও পড়ুন
সৌরভ-ঋদ্ধিমানের সতীর্থ, অবসাদে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন এই বঙ্গ ক্রিকেটার!

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More