স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির তালিকায় ভারতসেরা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়

সাম্প্রতিক সময়ে একাধিক সমীক্ষায় শীর্ষস্থানে উঠে এসেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। গত ১৯ তারিখে স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে প্রকাশিত হয়েছে সারা বিশ্বের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিজ্ঞানীদের নামের তালিকা। ভারতের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

ভারতের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা সংস্থার মধ্যে অবশ্য সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স। সেখান থেকে ১১৪ জন গবেষক জায়গা পেয়েছেন স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির তালিকায়। তবে দেশের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে প্রথম্ন স্থানে রয়েছে যাদবপুর। সব মিলিয়ে ২৯ জন গবেষক জায়গা পেয়েছেন তালিকায়। যাদবপুরের পরেই রয়েছে বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটি এবং ইউনিভার্সিটি অফ হায়াদ্রাবাদ। বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটির ২৪ জন এবং ইউনিভার্সিটি অফ হায়াদ্রাবাদের ২২ জন বিজ্ঞানী জায়গা পেয়েছেন।

স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির এই তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পরে স্বাভাবিকভাবেই খুশির হাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। ছাত্রছাত্রী থেকে শিক্ষক শিক্ষিকা প্রত্যেকেই আনন্দিত। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসের কথায়, এই সাফল্য শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখই উজ্জ্বল করেনি। রাজ্যের ভাবমূর্তিও উজ্জ্বল করেছে। তাছাড়া তাঁর বিশ্বাস, এই স্বীকৃতি পাওয়ার পর ইউজিসি তার ইনস্টিটিউট অফ এমিনেন্স তালিকাতে যাদবপুরকে ফিরিয়ে আনার কথাও ভাববে। কিছুদিন আগেই ইউজিসির কিছু নির্দেশিকা না মানার কারণে যাদবপুরকে তালিকা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। একইভাবে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল অশোকা ইউনিভার্সিটি, আজিম প্রেমজি ইউনিভার্সিটির মতো প্রতিষ্ঠানকেও। তবে যাদবপুরের মতো ঐতিহাসিক প্রতিষ্ঠানকে সরিয়ে দেওয়ার বিষয়ে যথেষ্ট বিতর্ক তৈরি হয়। শেষ পর্যন্ত ইউজিসি তার মত বদলায় কিনা, সেটাই দেখার।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More