পিছিয়ে পড়েও দুরন্ত প্রত্যাবর্তন, ৪১ বছর পর হকিতে পদকজয় ভারতের

‘হকি’, আপাতভাবে জনপ্রিয় কোনো খেলা না হলেও ভারতীয়দের আবেগ চিরকালই জড়িয়ে আছে এর সঙ্গে। ভারতের জাতীয় খেলা হকি। শুধু তাই নয়, হকিতে পদক জয় একসময় ভারতের কাছে অভ্যাস হয়েই দাঁড়িয়েছিল। কিন্তু সেসব আজ নেহাৎই অতীত। বরং দীর্ঘদিন ব্যর্থতার সঙ্গে লড়তে লড়তে জয়ের স্বাদই ভুলে গিয়েছিল ভারতের হকি দল। তবে টোকিও অলিম্পিকের শুরু থেকেই যেন ছবিটা খানিকটা বদলে গিয়েছিল। অনেকদিন পর আবার ভারতের হকি দলের খেলা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন দর্শকরা। পুরুষদের এবং মহিলাদের দুটি দলই অবাক করে চলেছিল সমান তালে। আর অবশেষে বহু প্রতীক্ষিত অলিম্পিক পদকজয় ভারতের পুরুষ হকি দলের। ৪১ বছর পর আবারও হকিতে অলিম্পিক পদক পেল ভারত। একটা গোটা প্রজন্মের কাছে এমন ঘটনা এই প্রথম।

ভারতের হকি দল অলিম্পিকে ৮ বারের সোনাজয়ী। শেষবার সোনা এসেছিল ১৯৮০ সালে। আর সেটাই অলিম্পিক হকিতে ভারতের শেষ পদকজয়। সেইবছরই অলিম্পিকে প্রথম মহিলাদের হকি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম বছর থেকেই যথেষ্ট ভালো খেলা উপহার দিয়েছিল মহিলা দলও। কিন্তু ভারতের ভাগ্যে পদক আর আসেনি। ভারতের হকি খেলার ভবিষ্যতটাই নষ্ট হয়ে গিয়েছে, এমনটাই মনে করেছিলেন অনেকে। খেলাটি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন দর্শকরাও। কিন্তু টোকিও অলিম্পিকে দুটি দলের খেলা আবারও নজর কাড়ল। আবারও হকিতে মুখ গুঁজলেন ভারতীয় দর্শকরা। তবে সেমিফাইনাল পর্বে এসে দুই দলের হেরে যাওয়াই হতাশ করেছিল। কিন্তু হতাশাই শেষ নয়, তা আবারও প্রমাণ করল পুরুষদের হকি দল।

সকাল থেকে খেলায় প্রথমদিকে বেশ খানিকটা এগিয়েই ছিল জার্মানি। প্রথম কোয়ার্টারেই ভারতকে ৩ গোল দিয়ে দেয় জার্মানি। অন্যদিকে ভারতের সঞ্চয় মাত্র একটি গোল। কিন্তু দ্বিতীয় কোয়ার্টারেই ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। প্রথমে দুটি গোল শোধ করে। তারপর তৃতীয় কোয়ার্টারে জার্মানিকে আরও দুটি গোল দেয় ভারত। চতুর্থ কোয়ার্টারে জার্মানি গোলের ব্যবধান কমিয়ে আনে। কিন্তু খেলার শেষে স্কোরকার্ড বলে, ৫-৪ গোলে জিতে গিয়েছে ভারত। অতএব টোকিও অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ পদক উঠল ভারতীয় দলের গলাতেই।

পুরুষদের হকি দলের এই সাফল্যের সঙ্গে সঙ্গে সারা দেশ থেকে এসেছে শুভেচ্ছার বার্তা। সেমিফাইনালে পরাজয়ের যন্ত্রণা ভুলে গিয়েছেন এক মুহূর্তে। অন্যদিকে দলের অধিনায়ক মনপ্রীত সিং বলেছেন, তাঁরাও সেমিফাইনালের ফলাফল ভুলেই খেলতে নেমেছিলেন। যা হয়ে গিয়েছে, তা তো হয়ে গিয়েছে। দেশবাসীর সমর্থন নিয়ে তাঁরা একটা নতুন সকাল উপহার দিলেন ভারতকে। ৮ বারের সোনাজয়ী ভারত অবশেষে আবারও জায়গা করতে পারল অলিম্পিক হকিতে। আর অলিম্পিকে এটা তৃতীয়বারের জন্য ব্রোঞ্জপদকজয়। হয়তো হারানো সাম্রাজ্য পুরোটা উদ্ধার করা গেল না। তবে এটা তো ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু। আগামীতে আবারও অলিম্পিকের ময়দানে রাজত্ব করবে ভারতের হকি দল, এমন প্রত্যাশা সকলেরই। আর সেইসঙ্গে এবারের অলিম্পিকেও মহিলাদের ব্রোঞ্জ পদক নির্ণায়ক ম্যাচ বাকি। আপাতত সেদিকেই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে আছেন সমস্ত ভারতবাসী।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More