মুক-বধিরদের জন্য আয়োজিত ডিফলিম্পিক্সে বাংলার অভিষা

“আজও আমাদের সমাজে বিশেষভাবে সক্ষম শিশুরা সবসময় বৈষম্যের শিকার হয়।” বলছিলেন উত্তরপাড়ার আমবাগান এলাকার বাসিন্দা সুস্মিতা ব্যানার্জি। তবে তাঁর সবচেয়ে বড়ো পরিচয় তিনি অভিষা ব্যানার্জির (Avisha Banerjee) মা। জন্ম থেকেই দুটি কানে শুনতে পায় না অভিষা। কথা বলাও তাই শেখা হয়ে ওঠেনি। কিন্তু এই সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে জয় করেই নিজের পরিচয় গড়ে তুলেছে সে। ১৮ বছরের অভিষা আর কিছুদিনের মধ্যেই পাড়ি জমাবে ব্রাজিলের উদ্দেশে। সেখানে মুক-বধিরদের জন্য আয়োজিত ডিফলিম্পিক্স (Deaflympics) প্রতিযোগিতায় টেবিল টেনিস খেলার জন্য নির্বাচিত হয়েছে সে।

ছোটো থেকেই খেলাধুলোর প্রতি বিশেষ আগ্রহ ছিল অভিষার। মাত্র ৩ বছর বয়সে শুরু করেছিল জিমন্যাস্টিক ট্রেনিং। তবে খুব বেশিদিন সেই খেলা এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। এরপর উত্তরপাড়া মহুয়া ক্লাব থেকে শুরু হয় টেবিল টেনিস প্রশিক্ষণ। কয়েক বছর সেখানে প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর অভিষা ভর্তি হয় হিন্দমোটরের বিবেকানন্দ ক্লাবে। বিবেকানন্দ ক্লাবের প্রতিনিধি হিসাবেই মাত্র ১৩ বছর বয়সে জাতীয় মুক-বধির টেবিল টেনিস প্রতিযোগিতায় স্বর্ণপদক জয় করে অভিষা। ২০১৯ সালের জাতীয় প্রতিযোগিতায় সোনা ও রুপো মিলিয়ে মোট ৪টি পদক জয় করে সে। সেই বছর পদকের সংখ্যায় সেটিই ছিল রেকর্ড।

তবে নিজের গণ্ডিতে কখনোই আটকে থাকতে চায়নি অভিষা। আর তার সঙ্গে সবসময় সঙ্গত দিয়ে গিয়েছেন বাবা-মা এবং দিদি অনুষা ব্যানার্জি। বর্তমানে নৈহাটির খেলরত্ন সম্মানপ্রাপ্ত টেবিল টেনিস খেলোয়াড় মিহির ঘোষের কাছে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে অভিষা। এর মধ্যেই এসে যায় আন্তর্জাতিক স্তরে প্রতিযোগিতার ডাক। ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয় ডিফলিম্পিক্সের ট্রায়াল। সেখানে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত প্রতিনিধিদের মধ্যে তৃতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছে অভিষা। আর ডিফলিম্পিক্সে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ছাড়পত্রও পেয়েছে সে।

আরও পড়ুন
৫ বছরের প্রতিবন্ধী কিশোরের জন্য বাসস্টপ নির্মাণ, মানবিকতার নজির পড়ুয়াদের

আজও আমাদের সমাজে শারীরিক প্রতিবন্ধকতাযুক্ত মানুষদের সমাজের মূল স্রোতে যুক্ত করার লড়াইটা নেহাৎ সহজ নয়। অভিষাকেও তাই বারবার বৈষম্যের মুখে পড়তে হয়েছে। “তবে খারাপ ব্যবহার যেমন সহ্য করতে হয়েছে, তেমনই বহু মানুষের ভালোবাসাও পেয়েছে অভিষা।” বলছিলেন সুস্মিতা। সেইসব মানুষের ভালোবাসাকে সঙ্গী করে আর নিজের চেষ্টা ও অধ্যবসায়ের জোরেই অভিষা আজ আন্তর্জাতিক স্তরে খেলার সুযোগ করে নিতে পেরেছে। আগামীদিনে আবারও বাংলার মুখ উজ্জ্বল করবে অভিষা, এই প্রত্যাশা থেকেই যায়।

আরও পড়ুন
হাসপাতালেই ছেড়ে গিয়েছিলেন বাবা-মা, প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে আজ 'সেলিব্রিটি' গ্যাবে

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
ইঞ্জিনিয়ারিং পড়া ছেড়ে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের জন্য কৃত্রিম হাত বানাচ্ছেন প্রশান্ত

More From Author See More

Latest News See More