মণিপুর থেকে উদ্ধার দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার ২৭টি বোমা, রয়েছে সক্রিয় অবস্থাতেই

মণিপুরের ছোট্ট শহর মোরে। পাহাড় ঘেঁষা মায়ানমারের সীমান্ত। সেখানেই লাংনং ভেং অঞ্চলে কাজ চলছিল একটি বাড়ির একাংশের নির্মাণের। এক্সক্যাভেটর দিয়ে সমান করা হচ্ছিল জমি। তবে মাটির আস্তরণ আস্তে আস্তে সরতেই বেরিয়ে এল বেশ কয়েকটি বোমা। ঘটনা সামনে আসতেই আতঙ্ক ছড়ায় অঞ্চলে।

গত সপ্তাহে এমনই আশ্চর্য ঘটনার সাক্ষী হয় মণিপুর। বোমাগুলি নজরে আসতেই বন্ধ করা হয় নির্মাণকাজ। দ্রুত খবর দেওয়া হয় নিকটবর্তী থানায়। মোরে থানার পুলিশ এবং বোম-স্কোয়াডের কর্মীরা এসে নিষ্ক্রিয় করেন বোমাগুলি। আর সেখানেই সামনে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। তাঁদের প্রাথমিক ধারণা, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে ব্যবহৃত বোমা এগুলি। কিন্তু কোনোভাবে বোমাবর্ষণে বিস্ফোরিত হয়নি বোমাগুলি। 

সমগ্র অঞ্চলই খুঁড়ে তল্লাশি চালায় পুলিশ। সব মিলিয়ে পাওয়া যায় ২৭টি অবিস্ফোরিত বোমা। ৪৩টি বোমার ফাঁকা শেল পাওয়া গেছে। সঙ্গে মিলেছে ১৫টি ফাঁকা বাক্স। তবে শুধু মণিপুর নয়। ঠিক দু’দিন আগেই দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার ৬টি বোমার হদিশ পাওয়া গেছে ইম্ফলেও। মিলেছে হাট্টা এলাকার ভারতীয় সেনানীদের সমাধিস্থলের কাছে। বিস্ফোরণ না হলেও সক্রিয় অবস্থাতেই ছিল তারা। এই ঘটনার মধ্যে দিয়েই ফিরে আসছে ইতিহাস। ভারত বিশ্বযুদ্ধে সরাসরি অংশ না নিলেও ব্রিটিশ উপনিবেশ হওয়ায় যুদ্ধের ঝড় বয়ে গিয়েছিল দেশের ওপর দিয়েও। তারই জীবন্ত প্রমাণ দিল এই বোমাগুলি...

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কার বোমা উদ্ধার জার্মানিতে, সরাতে হল ২৭০০ মানুষকে!

More From Author See More

Latest News See More