নোবেল শান্তি পুরস্কার এবার হু-এর দপ্তরে? চলছে জল্পনা

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। তারপরেই শুরু হতে চলেছে চলতি বছরের নোবেল পুরস্কার প্রাপকদের নাম ঘোষণা। তবে নোবেলের কথা বললেই সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয় অবশ্যই নোবেল শান্তি পুরস্কার (Nobel Peace Prize)। নোবেল শান্তি পুরস্কারের প্রাপকের নাম জানতে গেলে অপেক্ষা করতে হবে এখনও ৪টি দিন। ৮ অক্টোবর অসলোর নোবেল ইনস্টিটিউট থেকে ঘোষিত হবে সেই নাম। কিন্তু ইতিমধ্যে তাই নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে দেশজুড়ে। গতবছর একটুর জন্য দৌড়ে পিছিয়ে পড়েছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। এবছর আবারও মনোনয়নের তালিকায় রয়েছে সেই নাম। এবছর কি পুরস্কার পাবে সংস্থা? এই নিয়েই এখন জল্পনা তুঙ্গে।

২০২০ সালের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আলোচিত বিষয় ছিল কোভিড অতিমারী। তাই অনেকেই ভেবেছিলেন, কোভিড মোকাবিলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকেই পুরস্কৃত করবে নোবেল ইনস্টিটিউট। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের উদ্যোগই পছন্দ হয় বিচারকদের। কারণ অতিমারীর দোসর হয়েই এসেছিল অনাহার। চলতি বছরে করোনা ভাইরাসের দাপট কিছুটা কমলেও পুরোপুরি রেহাই মেলেনি। আর তাই এবারেও নোবেল পুরস্কার ঘোষণার পিছনে এই বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেই মনে করছেন অনেকে। সেখানে ভ্যাকসিনের বণ্টন সার্বিক করার উদ্দেশ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোভ্যাক্স প্রোগ্রামের গুরুত্বের কথাও উঠে আসছে বারবার।

তবে এরপরেও অনেকেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পুরস্কার পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদী নন। বরং এই উদ্যোগের সমালোচনাও করছেন অনেকে। ভ্যাক্সিন সংক্রান্ত বিষয় নোবেল শান্তি পুরস্কারের নিয়ামক হতে পারে না, তার জন্য চিকিৎসাশাস্ত্রে আলাদা করে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়। এমন কথাও বলছেন অনেকে। এমনকি করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত গবেষণায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্টগুলির অস্বচ্ছতার কথাও উঠে আসছে। অন্যদিকে নোবেল শান্তি পুরস্কারের দৌড়ে এবছর রয়েছেন ক্রেমলিন সমালোচক অ্যালেক্সি নাভালনি। যিনি বর্তমানে কারাবন্দি হয়ে রয়েছেন। এছাড়াও রয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাকিন্ডা আর্ডার্ন। রয়েছেন পরিবেশ আন্দোলনের তরুণ মুখ গ্রেটা থানবার্গও। গ্রেটা থানবার্গের পরিবেশ আন্দোলন এবং পরিবেশ ও উপজাতি মানুষদের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষে জাকিন্ডা আর্ডার্নের ভূমিকাও আলোচনার দাবি রাখে। বিশেষ করে বর্তমান পরিস্থিতিতে পরিবেশ সমস্যা যখন অন্যতম আলোচিত বিষয়। বিগত ৫০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বন্যা, দাবানল এবং ভূমিক্ষয়ের ঘটনা ঘটেছে এই ২০২১ সালে। তাহলে কি কোভিড অতিমারীকে পিছনে ফেলে পরিবেশ সংক্রান্ত বিষয়ই নোবেল শান্তি পুরস্কারের নিয়ামক হয়ে উঠছে? এমনটাই মনে করছেন অনেকে।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
মার্কিন শহরের ‘নবজন্ম’ দিয়ে নোবেলের দাবিদার কলকাতার রবীন

More From Author See More

Latest News See More