ট্রাম্প-জমানায় ধর্মীয় পক্ষপাতিত্ব চরমে, কাঠগড়ায় মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট

মার্কিন বিচার ব্যবস্থার সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান সুপ্রিম কোর্ট। এবার সেই সুপ্রিম কোর্টকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করাল সাম্প্রতিক রিপোর্ট। অভিযোগ, ধর্মীয় পক্ষপাতে দুষ্ট এই প্রতিষ্ঠান। আঙুল উঠল অধিকাংশ বিচারপতির দিকেই। বিচার ব্যবস্থায় ধর্মীয় পক্ষপাত নতুন কোনো বিষয় নয়। এর আগেও বহুবার মার্কিন প্রদেশে বিতর্ক ঘনিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘিরে। তবে সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে দাবি করা হল, পক্ষপাতের সেই মাত্রা ছাপিয়ে গেছে সর্বকালীন রেকর্ড।

‘দ্য সুপ্রিম কোর্ট রিভিউ’ জার্নালে সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে এই রিপোর্ট। বিগত ৭০ বছরে সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া বিভিন্ন মামলার রায়ের প্রেক্ষিতেই প্রস্তুত করা হয়েছে এই প্রতিবেদনটি। সেখানে জানানো হয় মৌখিক রায়ের ক্ষেত্রে ৩৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে ধর্মীয় পক্ষপাত। বর্তমানে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির আসনে রয়েছেন জন রবার্টস। ২০০৫ সাল থেকেই এই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। রিপোর্ট জানান দিচ্ছে, তাঁর দেওয়া রায় ৮১ শতাংশ ঝুঁকে রয়েছে ধর্মের দিকেই। প্রাধান্য পাচ্ছে বিভিন্ন খ্রিস্টান মিশনারিগুলি। অন্যদিকে প্রশ্নের মুখে সাধারণ, বিশেষত সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় স্বাধীনতা। 

উল্লেখ্য, রবার্টসের দায়িত্ব নেওয়ার পর ২০০৫ সাল থেকেই বৃদ্ধি পেয়েছে পক্ষপাতের হার। তবে এর পিছনে আদতে দায় রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টদেরই। ঠিক কেমন? মার্কিন প্রশাসনের কাঠামোর দিকে দেখলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে বিষয়টি। যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে একজন প্রধান বিচারপতির পাশাপাশি দায়িত্বে থাকেন ৮ সহকারী বিচারপতি। আর এই ৯ বিচারপতিকেই নিযুক্ত করেন কোনো না কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ঠিক সেইভাবেই ২০০৫ সালে সর্বোচ্চ ক্ষমতায় থাকাকালীন প্রেসিডেন্ট বুশ নিয়োগ করেছিলেন রবার্টসকে।

পরিসংখ্যান এবং ইতিহাস বলছে রিপাবলিকান রাষ্ট্রপতিদের মধ্যে রক্ষণশীল মনভাব অত্যন্ত প্রকট। অন্যদিকে ডেমোক্র্যাটরা খানিকটা হলেও উদারপন্থী। উল্লেখ্য, জর্জ বুশ ছিলেন রিপাবলিকান পদপ্রার্থীই। তবে তাঁর পরে ওবামা কোনো বিচারপতি নিয়োগ করার সুযোগ পাননি। ২০১৭ সালের পর একাধিক শূন্যতা তৈরি হলে নিজের মন মতো বিচারপতি বেছে নেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর তারপর থেকেই কার্যত চরমে পৌঁছায় ধর্মীয় পক্ষপাত। হিসেব বলছে, ডেমোক্র্যাটদের নির্বচিত বিচারপতিদের ক্ষেত্রে ধর্মীয় পক্ষপাতের ঘটনা ঘটেছে মাত্র ১০ শতাংশ। রিপাবলিকানদের ক্ষেত্রে সেই হার ৭২ শতাংশ। উল্লেখ্য, তাঁদের মধ্যে ৮২ শতাংশ বিচারকই নিযুক্ত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে।

আরও পড়ুন
২.৭ কোটি মার্কিন ডলারের ক্ষতিপূরণ, ‘বিচার’ পেলেন জর্জ ফ্লয়েড?

রিপোর্ট অনুযায়ী, সংস্কৃতি থেকে শুরু করে সমলিঙ্গ বিবাহ— সবক্ষেত্রেই প্রভাব পড়েছে ধর্মীয় পক্ষপাতের। বলা চলে, গত বছর বিচারপতি রুথ গিন্সবার্গের মৃত্যুর পর তলানিতে এসে ঠেকেছে উদারপন্থী শাসন ব্যবস্থা। শুধুমাত্র ‘সুফল’ ভোগের জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্প যে রাজনৈতিক ও বিচার ব্যবস্থার পরিবর্তন ঘটিয়েছেন, তাতে সন্দেহ নেই কোনো। 'ইমপিচমেন্ট' থেকে রক্ষা পাওয়াও হয়তো সেই কারণেই। তবে এর প্রভাব আগামী দশ বছরেরও বেশি সময় স্থায়ী হবে বলেই ধারণা বিশ্লেষকদের…

আরও পড়ুন
মার্কিনিদের সঙ্গে সমঝোতা, ‘নিজেদের’ বিরুদ্ধেই যুদ্ধ করলেন জার্মান সৈন্যরা!

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
ক্যাপিটল-হামলাকারীদের বিচিত্র পোশাকের কারণ কী? রহস্য ঘনীভূত মার্কিন প্রদেশে

More From Author See More

Latest News See More