ইতিহাসের বৃহত্তম ট্রাক্টর মিছিল, প্রজাতন্ত্র দিবসে দেশের চোখ রাজধানীতে

আজ দেশের ৭২ তম প্রজাতন্ত্র দিবস। আর এই দিনটিকে মাথায় রেখেই আন্দোলনের চরম কর্মসূচির ডাক দিয়েছেন সিংঘু সীমান্তের প্রতিবাদী কৃষকরা। হাজারে হাজারে ট্রাক্টর পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ থেকে প্রবেশ করছে রাজধানী দিল্লির অভিমুখে। এত বড়ো ট্রাক্টর মিছিল ভারত তো বটেই, পৃথিবীর কোনো দেশ কোনোদিন দেখেনি।

প্রজাতন্ত্র দিবসে সেনাবাহিনীর কুচকাওয়াজ যেমন প্রতি বছর হয়, তেমনই হচ্ছে এবারেও। কিন্তু সমস্ত দেশের চোখ ঘুরে গিয়েছে কৃষকদের প্রতিবাদ কর্মসূচির দিকেই। এমনকি রাজপথের কুচকাওয়াজের নিরাপত্তার চেয়েও পুলিশের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল। যদিও শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ কর্মসূচির কথা বলা হলেও ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জায়গায় কৃষক-পুলিশ সংঘর্ষ শুরু হয়ে গিয়েছে।

পুলিশের দাবি, কৃষকরা প্রশাসনিক নির্দেশিকা লঙ্ঘন করে মিছিলের গতিপথ বদল করেছে। অন্যদিকে কৃষকদের অভিযোগ, পুলিশ শান্তিরক্ষার পরিবর্তে কৃষকদের উত্যক্ত করে চলেছেন। প্রসঙ্গত, গত সেপ্টেম্বর মাস থেকেই কেন্দ্রের নতুন তিনটি কৃষি-আইন নিয়ে আন্দোলনে নেমেছেন অসংখ্য কৃষক। শ্রমিক-কৃষক ইউনিয়নগুলির পাশাপাশি এই আন্দোলনে সমর্থন জানিয়েছেন দেশের অনেক রাজনৈতিক দল এবং বুদ্ধিজীবিরাও। প্রায় তিনমাস ধরে সিংঘু সীমান্তে চলছে অবস্থান বিক্ষোভ। আর এই লাগাতার আন্দোলনের চাপে কেন্দ্র সরকারও শেষ পর্যন্ত নমনীয় অবস্থান নিয়েছে।

কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কৃষকদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ আলোচনায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে আগামী দেড় বছরের জন্য তিনটি কৃষি আইন স্থগিত রাখার কথাও ভাবা হচ্ছে। অন্যদিকে সমস্ত দিক খতিয়ে দেখতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তৈরি হয়েছে বিশেষ কমিটি। সব মিলিয়ে এই সময় দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে কৃষক আন্দোলন। আর আজকের মিছিল সেই জায়গা থেকে অনেকটাই গুরুত্বপূর্ণ, সে-কথা বলাই বাহুল্য।

Powered by Froala Editor