১০৩ বছরের জন্মদিনে স্কাইডাইভ, গিনেস বুকে নাম উঠল বৃদ্ধার

বয়স চল্লিশ পেরোনোর আগেই হাজার এক রোগ এসে বাসা বাঁধছে মানুষের শরীরে। চারিদিকে চোখ বোলালে এমন একজনকেও হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না যিনি চল্লিশ পেরিয়েও একেবারে সুস্থ রয়েছেন। দুঃখের বিষয় এখানেই, দুশ্চিন্তারও। কাজের চাপ, পরিবেশ, আবহাওয়া সবই প্রভাব ফেলছে অল্পবিস্তর তবু এ যেন এক অবাক উদাহরণ দেখল পৃথিবী। ক্যাথরিন হোজেস, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্নোহোমিস কান্ট্রিতে বাড়ি তাঁর। বয়স বেশি না, মাত্র ১০৩ বছর। ২০১৯-এ ১০৩ সম্পূর্ণ করে ভদ্রমহিলা ঠিক করেন, স্কাই ডাইভিং করবেন তিনি।

না, এ একেবারেই বেয়াড়া আহ্লাদ মনে হতে পারে আপনার। কিন্তু নিজের জন্মদিন সেলিব্রেট করার এর থেকে ভালো কোনো উপায় খুঁজে পাননি তিনি।

https://www.youtube.com/watch?time_continue=80&v=lKcwegJGGC0

১০০০০ ফুট উচ্চতা থেকে তাই একজন স্নোহোমিস স্কাই ডাইভারের সঙ্গে যৌথভাবে স্কাই ডাইভিং করলেন চির তরুণী ক্যাথরিন হোজেস, ওরফে কিটি। জন্মদিনের উপহার হিসেবে পেলেন গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নিজের স্থান। যদিও স্কাই ডাইভিং এর এই অভিনব আইডিয়াটি ক্যাথরিনের পুত্র ওয়ারেন তাঁকে দেন। স্কাইডাইভ স্নোহোমিস-এর অফিসিয়ালরা জানান এখনও পর্যন্ত গিনেস বুক অফ রেকর্ডে ১০২ বছরের এক অস্ট্রেলিয়ান মহিলা রয়েছেন। এরপরই ক্যাথরিন সিদ্ধান্ত নেন স্কাইডাইভের। 

অভিজ্ঞতা জানতে চাওয়ায় তিনি জানান তিনি আপ্লুত। তবে ল্যান্ডিং পর্যন্ত বেশ নার্ভাস ফিল করেছেন বলে স্বীকার করেন তিনি।

More From Author See More

Latest News See More

avcılar escortbahçeşehir escortdeneme bonusu veren sitelerbahis siteleri