করোনা প্রতিরোধে রোবট মোতায়েন করল আফ্রিকার এই দেশ

ভাইরাস মানেই সংক্রামক, কিন্তু করোনার মতো সংক্রামক ভাইরাস ইতিপূর্বে আর দেখা যায়নি। সমস্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা নেওয়ার পরেও ছড়িয়ে পড়ছে সংক্রমণ। এমকি সংক্রমিত ব্যক্তিদের চিকিৎসা করতে গিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের শরীরেও ঢুকছে ভাইরাস। ইতিমধ্যে পৃথিবীতে ৯০ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। আর রোয়ান্ডা সরকার তাই রোগীদের থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের যতদূর সম্ভব দূরে রাখতে চেষ্টা করছেন। তার বদলে চিকিৎসার ছোটোখাটো কাজ করবে রোবট। খুব শিগগিরই পাঁচটি রোবটকে এই কাজে মোতায়েন করতে চলেছে রোয়ান্ডা সরকার।


পূর্ব আফ্রিকার এই দেশটিতে করোনা সংক্রমণ পৌঁছেছে অনেক পরে। কিন্তু মাত্র কয়েক সপ্তাহেই সেখানে ৩৫০ জনের বেশি করোনা আক্রান্ত। তাই দ্রুত চিকিৎসা পরিকাঠামো গড়ে তোলার প্রয়োজন দেখা দিয়েছে। আপাতত রাজধানী কিগালির একটি সরকারি হাসপাতালেই করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা চলছে। আর সেখানেই মোতায়েন করা হবে এই পাঁচটি রোবটকে। সম্প্রতি ইউনাইটেড নেশনস ডেভেলাপমেন্ট প্রোগ্রামের পক্ষ থেকে সরকারের হাতে এই রোবটগুলি তুলে দেওয়া হয়েছে।


এই পাঁচটি রোবট অত্যন্ত তৎপরতার সঙ্গে রোগীদের শরীরের উষ্ণতা বিচার, বিভিন্ন উপসর্গ বিচার এমনকি সংক্রমণের সম্ভবনাও বুঝতে পারবে। সেইসঙ্গে তার মধ্যে থাকা ডিজিট্যাল মেমোরিতে সমস্ত তথ্য সংরক্ষিত থাকবে। তাছাড়া রোগীদের খাবার ও ওষুধ সরবরাহ করতে পারবে এই রোবট। এমনকি হাসপাতাল পরিসরে কেউ মাস্ক ছাড়া ঘুরছে কিনা, সেদিকেও নজর রাখবে তারা। ইউনাইটেড নেশনসের প্রতিনিধি দল খুব শিগগিরই রোয়ান্ডা গিয়ে চিকিৎসকদের এই প্রযুক্তি বুঝিয়ে দেবেন, আর তারপরেই কাজ শুরু করবে পাঁচ রোবট।


করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে নানারকম রোবোটিক প্রযুক্তি ব্যবহারের পরিকল্পনা আগেও দেখা গিয়েছে। কিন্তু সেগুলোর কোনোটাই এমন বহুমুখী কাজ করতে পারতো না। মূলত খাবার ও ওষুধ সরবরাহ এবং টহলদারি জন্যই তাদের নিয়োগ করা হয়েছিল। তবে রোয়ান্ডার এই পাঁচটি রোবট যদি স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে রোগীর প্রত্যক্ষ যোগাযোগ কমিয়ে আনতে পারে, তাহলে যে সংক্রমণ অনেকটাই কমবে সেকথা বলাই বাহুল্য।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More