হ্যারি পটারের জাদুদণ্ড তৈরি হচ্ছে বাংলাতেও, নেপথ্যে কাঁচড়াপাড়ার কুণাল

“ছোটবেলায় আমি হ্যারি পটারের ছবি বিশেষ দেখিনি। সিরিজের প্রথম তিনটে সিনেমা দেখেছিলাম, কিন্তু তেমন আগ্রহ পাইনি।” বলছিলেন শিল্পী কুণাল বসু (Kunal Bose)। হ্যারি পটারের (Harry Potter) সঙ্গে যাঁর ভালোবাসা গড়ে উঠেছে গত এক বছরের মধ্যে। একটা একটা করে দেখে ফেলেছেন সিরিজের সবকটি সিনেমা। আর তারপর সিরিজের প্রতিটা চরিত্রের জাদুদণ্ড বা ওয়ান্ডগুলি (Magic Wand) নিজের হাতে তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি।

কুণাল বলছিলেন, “সিনেমাগুলো দেখতে দেখতেই আমার নিজের কাছে একটা ওয়ান্ড রাখার ইচ্ছে হয়েছিল। কিন্তু ইন্টারনেটে বিভিন্ন ই-কমার্স ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখি, সেগুলির যা দাম তাতে আমার পক্ষে কেনা সম্ভব নয়। তাই নিজেই বানাতে শুরু করলাম।” উপাদান একেবারে ঘরোয়া। উলের কাঁটার উপর মোল্ড ইট ক্লে দিয়ে তৈরি করছেন কাঠামো। তারপর সেগুলি পরিষ্কার করে রং চড়িয়ে বার্নিশ করে নিলেই একেবারে তৈরি।

অবশ্য হ্যারি পটারকে নিয়ে তাঁর আবেগ আগেও ধরা পড়েছে বহুবার। পেশাগতভাবেই কুণাল বসু একজন শিল্পী। মাঝে অন্য পেশায় যোগ দিলেও মন মানেনি। কারণ তখন ছবি আঁকার সময় পাচ্ছিলেন না তিনি। তাই আবার ফিরে আসা শিল্পের কাছে। উপার্জনের জন্য টি-শার্ট বা মোবাইল কভারের উপরেও ছবি আঁকেন। এতে রোজগার যেমন হয়, তেমনই শিল্পী মনও তৃপ্তি পায়। এর আগে মোবাইল কভারেও হ্যারি পটারের বিভিন্ন হাউসের লোগো এবং অন্যান্য ছবি এঁকেছেন তিনি। তবে ওয়ান্ড তৈরির কাজ শুরু করেছিলেন মূলত নিজের জন্যই।

সামাজিক মাধ্যমে সেই ওয়ান্ডের ছবি শেয়ার করতেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়ে যায় তাঁর এই উদ্যোগ। নানা জায়গা থেকে মানুষ ফোন করে অর্ডার দিতে থাকেন। খুব বেশিদিন শুরু হয়নি এই কাজ। ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকেই পুরোদমে কাজ করছেন কুণাল। তবে এর মধ্যেই অর্ডার এসেছে প্রচুর। এমনকি সুদূর সুইৎজারল্যান্ড থেকেও তাঁর হাতে তৈরি ওয়ান্ড চেয়ে পাঠিয়েছেন এক ক্রেতা। কুনালের কথায়, “হ্যারি পটারের ভক্তের সংখ্যা তো কম নয়। কিন্তু ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে ওই চড়া দামে ওয়ান্ড কিনতে পারেন না অনেকেই।” কুনালের এই উদ্যোগ তাই তাঁদের ইচ্ছাপূরণের পথ হয়ে উঠেছে।

সব মিলিয়ে একটি ওয়ান্ড তৈরি করতে প্রায় আড়াই দিন সময় লাগে, জানালেন কুণাল। এর মধ্যে এত মানুষের বায়না মেটানো সহজ নয়। কিন্তু সৃষ্টির আনন্দেই বুঁদ হয়ে থাকেন তিনি। আর হ্যারি পটারের প্রতি ভালোবাসা তো রয়েছেই। সিরিজের প্রথম সিনেমা মুক্তির ২০ বছর পূর্তির উদযাপন চলছে পৃথিবীজুড়ে। সেই আয়োজনেই নিজের শিল্পকে সঙ্গী করে পা মেলালেন কুণাল। তবে শুধু ওয়ান্ড তৈরিতেই থেমে থাকতে চান না তিনি। এরপর সিরিজে দেখানো কুইডিচ বল এবং অন্যান্য নানা জাদু সরঞ্জাম তৈরির ইচ্ছাও আছে তাঁর। বলা বাহুল্য, এগুলির মধ্যে কোনো জাদু নেই। কিন্তু সেই একই মায়াবি নকশার হাত ধরে মনে মনে সবাই পৌঁছে যেতে পারেন হগওয়ার্টসের চত্বরে। সেখানে নিজের পছন্দের কোনো চরিত্রের জায়গায় কল্পনা করে নিতে পারেন নিজেকে। শিল্পের জাদু যে এখানেই।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More