সাইন ল্যাঙ্গুয়েজকে লিখিত রূপ দেবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আবিষ্কার ভারতীয় তরুণীর

সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ (Sign Language) বা সাংকেতিক ভাষা। সকলেই অল্পবিস্তর এ ভাষার সম্পর্কে জানি আমরা। মূলত কোনো শব্দোচ্চারণ না করে, অঙ্গভঙ্গির মধ্যে দিয়ে মনের ভাবপ্রকাশের মাধ্যমই এই সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ। মূলত, মূক ও বধিরদের কাছে মনের কথা বোধগম্য করে তুলতেই ব্যবহৃত হয় এই বিশেষ ভাষা। কিন্তু আমরা ক’জনই বা জানি এই ভাষার ব্যবহার? এবার এই সমস্যারই অভিনব সন্ধান দিলেন এক ভারতীয় তরুণী। তৈরি করে ফেললেন সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের ট্রান্সলেটর।

প্রিয়াঞ্জলি গুপ্তা (Priyanjali Gupta)। হ্যাঁ, তাঁর তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাই এবার কথ্য ভাষায় অনুবাদ করে দেবে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজকে। কথ্য ভাষা না বলে, তাকে অবশ্য লিখিত ভাষা বলাই উপযুক্ত। হ্যাঁ, অনেকটা গুগল ক্যামেরার মতোই কাজ করবে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স। অর্থাৎ, ক্যামেরার মাধ্যমে মানুষের অঙ্গভঙ্গিকে স্ক্যান করলেই ডিজিটাল স্ক্রিনে ফুটে উঠবে তার অন্তর্নিহিত অর্থ। 

তবে কথ্য ভাষার মতোই, অঞ্চলের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যায় সাইন ল্যাঙ্গুয়েজও। বিভিন্ন দেশে প্রচলিত রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সাংকেতিক ভাষা। প্রিয়াঞ্জলির তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মূলত আমেরিকান সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ বা এএসএল-এর অনুবাদে সক্ষম। তবে পরবর্তীতে তা অন্যান্য সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের ভাষাকেও অনুবাদ করতে পারবে বলেই জানাচ্ছেন তিনি। 

কিন্তু কীভাবে এই প্রযুক্তি তৈরি করলেন প্রিয়াঞ্জলি। টেনসারফ্লো অবজেক্ট ডিটেকশনের মাধ্যমে মানুষের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের গতিবিধি এবং মুখমণ্ডলের ভঙ্গিকে চিহ্নিত করাই এই প্রযুক্তির মূলমন্ত্র। এমনটাই জানাচ্ছেন ভেলোর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির ছাত্রী প্রিয়াঞ্জলি। তবে তারও আগে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাটিকে। রয়েছে তার নিজস্ব ‘শব্দকোষ’। যদিও তার পরিধি সামান্যই। এখনও সম্পূর্ণ ভাষার প্রশিক্ষণ কার্য সম্পন্ন হতে সময় লাগবে বেশ খানিকটা। তবে এর মধ্যেই অ্যাপ ডেভলপারদের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করে দিয়েছেন ভারতীয় তরুণীটি। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাটিকে যে অ্যাপ্লিকেশনের রূপদানও করতে হবে। 

সাইন ল্যাঙ্গুয়েজকে জাতিসংঘ স্বতন্ত্র ভাষার স্বীকৃতি দিয়েছে বহু আগেই। দেশের মধ্যেও একাধিকবার দাবি উঠেছে এই ভাষাকে বাধ্যতামূলকভাবে শেখানোর জন্য। তবে সাইন ল্যাঙ্গুয়েজের পাঠদানের কোনো পদক্ষেপই নেয়নি সরকার। ফলে, সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলা আজও প্রায় অসম্ভব অধিকাংশ মূক ও বধির ব্যক্তিদের কাছে। আগামীতে সেই বিভেদরেখাই মুছে দিতে চলেছে প্রিয়াঞ্জলির এই আবিষ্কার…

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More