কাচের দরজার ওপাশে চিকিৎসক-বাবা, কান্নায় ভেঙে পড়ল ছোট্ট মেয়ে

পৃথিবীজুড়ে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁয়েছে ২০ লাখ। এখনও পর্যন্ত তৈরি করা যায়নি কোনো ওষুধ। আবিষ্কার হয়নি ভ্যাকসিন-ও। সুতরাং, জনবিচ্ছিন্নতাই সংক্রমণ আটকানোর একমাত্র উপায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রায় সমস্ত দেশেই ঘোষণা করা হয়েছে লকডাউন। অধিকাংশ মানুষই গৃহবন্দি হয়ে দিন কাটাচ্ছেন। কিন্তু চিকিৎসকরা? নিজেদের জীবন বিপন্ন করে, এই যুদ্ধে সামনে থেকে লড়ে যাচ্ছেন তাঁরা। তেমনই এক চিকিৎসা-সৈনিকের একটি ট্যুইটার ভিডিও নজর কেড়েছে সবার। ভাইরাল হতে সময় লাগেনি বিশেষ।

https://twitter.com/ThePlacardGuy/status/1250293770844663808

একটি ছোট্ট মেয়ে হেঁটে যাচ্ছে কাচের দরজার দিকে। দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তার বাবা। পরনে ডাক্তারি পোশাক, মুখে মাস্ক। কাচের দরজার বাইরে থেকেই হাত নাড়ছেন তিনি। চুম্বনও করলেন তাঁর মেয়েকে। বাইরে থেকেই। অন্যদিকে, বাচ্চাটি দরজা খোলার চেষ্টা করে চলেছে অনর্গল। অনেকক্ষণ ধরে নানাভাবে কথা বলে চলেছে বাচ্চাটি। শেষে, দরজা খুলতে না পেরে, কাঁদছে অঝোর নয়নে। পৌঁছতে চাইছে বাবার কাছে। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পরিবারের থেকে এভাবেই দূরত্ব বজায় রেখে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ওই চিকিৎসক।

এই দৃশ্য সত্যিই ভারাক্রান্ত করে তুলবে যে কারোর মনকে। ভিডিওটির মাধ্যমে ঘরে থাকার বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন ওই চিকিৎসক। সচেতন করার চেষ্টা করেছেন, সামাজিক দূরত্ব বজাইয় রাখার ব্যাপারে। এই সত্যিকারের সুপারহিরোদের কথা মেনে, এটুকু কি করতে পারি না আমরা?

More From Author See More

Latest News See More