নিজস্ব সঞ্চয় থেকেই ১০০ অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর ক্রয় ৯ বছরের পরিবেশকর্মীর

৯ বছরের লিসিপ্রিয়াকে এর আগে বারবার দেখা গিয়েছে পরিবেশ দূষণের বিরুদ্ধে জনমত গঠন করতে। মণিপুরের এই বালিকার আন্দোলন রীতিমতো আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃতি পেয়েছে বছর দুয়েক আগেই। আর এবার দেশের অতিমারী পরিস্থিতিতে অক্সিজেনের সঙ্কট মেটাতেও এগিয়ে এল লিসিপ্রিয়া। সম্প্রতি একটি ট্যুইটে লিসিপ্রিয়া জানিয়েছে, কিছুদিনের মধ্যেই ভারতে আসতে চলেছে ১০টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর যন্ত্র। তবে সে মোট ১০০টি যন্ত্র অর্ডার দিয়েছে বলে জানিয়েছে। আর তার জন্য সম্পূর্ণ খরচ বহন করেছে নিজের ব্যক্তিগত সংগ্রহ থেকেই।

পাশাপাশি দেশের প্রতিটা মানুষকে এই দুঃসময়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে লিসিপ্রিয়া। তার মতে, বর্তমানে যে সঙ্কট চলছে তাতে ১০০টি ৫ লিটারের অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর যন্ত্র তেমন কোনো প্রভাব ফেলবে না। আরও প্রচুর যন্ত্রের প্রয়োজন। হয়তো দেশের সব মানুষ নিজেদের উদ্যোগে এই যন্ত্র কিনতে পারবেন না। কিন্তু তাঁরা যদি লিসিপ্রিয়ার ফান্ডে সাধ্যমতো সঞ্চয় জমা করেন, তাহলে সে নিজেই উদ্যোগ নিতে পারে। ইতিমধ্যে লিসিপ্রিয়ার এই আবেদনে সাড়া দিয়েছেন বহু মানুষ।

সাধারণ মানুষের কাছে আবেদনের পাশাপাশি লিসিপ্রিয়া বিভিন্ন দেশের বিদেশমন্ত্রকের সঙ্গেও যোগাযোগের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তার আবেদনে সাড়া দিয়ে তাইওয়ান সরকার ভারতে ১৫০টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর যন্ত্র পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এছাড়াও ভবিষ্যতে সাহায্যের জন্য সরকারি স্তরে আলোচনার সিদ্ধান্তও নিয়েছেন তাইওয়ানের বিদেশমন্ত্রী জোসেফ উ। ভারতের গ্রেটা থানবার্গ নামে পরিচিত লিসিপ্রিয়া কাঙ্গুজাম। পরিবেশ রক্ষার বিষয়ে সরকারের আইন সংশোধনের দাবিতে ২ বছর আগে পার্লামেন্টের সামনে অবস্থানেও দেখা গিয়েছে তাকে। এরপরেই আন্তর্জাতিক স্তরে পরিচিতি পায় লিসিপ্রিয়া। বিশ্ব শিশুশান্তি পুরস্কার, রাইজিং স্টার পুরস্কারের মতো অসংখ্য সম্মান পেয়েছে লিসিপ্রিয়া। আর সেইসব পুরস্কারমূল্যকেই সে খরচ করল দেশের জরুরি পরিস্থিতিতে। তার এই উদ্যোগের জন্য প্রশংসা জানিয়েছে সারা ভারতের মানুষ।

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
স্বল্পমূল্যের অক্সিজেন ঘনীভবন যন্ত্র তৈরি ভোপালে

More From Author See More

Latest News See More