ঘটেই চলেছে জনবিস্ফোরণ, সাড়ে আটশো কোটি ছুঁতে চলেছে পৃথিবীর জনসংখ্যা

প্রতিনিয়ত যে হারে বেড়ে চলেছে বিশ্বের জনসংখ্যা, তাতে আগামী ১০ বছরের মধ্যেই আরো প্রায় ১০০ কোটি বৃদ্ধি পাবে জনসংখ্যার পরিমাণ। অর্থাৎ প্রায় সাড়ে আটশো কোটির কাছাকাছি কিংবা তারও বেশি জনসংখ্যা দাঁড়াবে আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে।

জাতিসংঘের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে পৃথিবীর জনসংখ্যা প্রায় ৭৭০ কোটি। এই বৃদ্ধির হার বজায় থাকলে ২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বের মোট জনসংখ্যা গিয়ে দাঁড়াতে পারে ৯৭০ কোটিতে, এবং আর ৮০ বছরের মধ্যেই, অর্থাৎ ২১০০ সালে তা গিয়ে ঠেকবে ১০৯০ কোটিতে।

জাতিসংঘের তরফে একটি রিপোর্টে জানানো হয়েছে, বিশ্বের মোট জনসংখ্যা ১০০ কোটি অবধি পৌঁছতে কয়েক হাজার বছর সময় লেগে গিয়েছিল। কিন্তু তার পরেই দ্রুত বাড়তে থাকে এই হার। এর পিছনে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উন্নতির কথা অস্বীকার করা হয়নি। বলা হয়েছে যে, প্রজননের ব্যবস্থার উন্নতি, শিশু এবং মায়ের মৃত্যুর হার কমায়, জন্মের হার বৃদ্ধি, নগরায়ণ এবং ব্যাপক পরিমাণে অভিবাসনের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়া ত্বরাণ্বিত করেছ এই জনবিস্ফোরণ। এর ফলে যেমন জন্মের হার বৃদ্ধি পেয়েছে তেমনি মৃত্যুর হার কমে বেড়েছে গড় আয়ুও।

১৯৯০-এর দশকে যেখানে মানুষের গড় আয়ু ছিল ৬৪.৬ বছর, সেখানে ২০১৯ সালে মানুষের গড় আয়ু দাঁড়িয়েছে ৭২.৬ বছর। এছাড়াও রিপোর্টে দেখানো হয়েছে, ২০০৭ সালে প্রথমবার বিশ্বে মোট জনসংখ্যার অধিকাংশ বেশি মানুষ বসবাস করা শুরু করে শহরাঞ্চলে। ২০৫০ সাল নাগাদ বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ৬৬ শতাংশই উঠে আসবে শহরের বুকে, এমনই জানানো হয়েছে জাতিসংঘের রিপোর্টে।

আরও পড়ুন
দু’বছর আগেও ছিল মাত্র ১৩২টি, ধীরে ধীরে বাড়ছে অন্যতম দুর্লভ এই পাখি

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
জনসংখ্যা কোটির ওপরে, মাত্র ৪টি ভেন্টিলেটর রয়েছে এই ‘গরিব’ দেশে

More From Author See More

Latest News See More