রাজ্যে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছল ৩০ হাজারে, একদিনে আক্রান্ত ১৫০০

ক্রমশ জটিল থেকে জটিলতর হচ্ছে রাজ্যের করোনা পরস্থিতি। গত বৃহস্পতিবার ২৫ হাজারের গণ্ডি পেরিয়েছিল রাজ্য। এবার আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁল ৩০ হাজারের সীমা। একদিনে আক্রান্তের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে বাংলায় সংক্রমিত হলেন ১৫৬০ জন। রাজ্যে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৯৩০।

প্রথম থেকেই করোনার থাবায় সব থেকে বেশি প্রভাব পড়েছিল কলকাতায়। খারাপ অবস্থা দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া এবং হুগলিতে। শুধুমাত্র রবিবারই কলকাতায় নতুন করে সংক্রমিত হলেন সাড়ে চারশো মানুষ। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে মালদহ, উত্তর দিনাজপুর, পূর্ব মেদিনীপুরেও। রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর সংখ্যা ২৬। তার মধ্যে রয়েছেন কলকাতার ১৩ জন। তবে আশার কথা, রাজ্যে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা গত ৪ দিনে ২৬-এই সীমাবদ্ধ রয়েছে।

একদিকে আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বেড়েই চলেছে তেমনই বেড়ে চলেছে পজিটিভিটির হার। ৮ শতাংশ থেকে বাড়তে বাড়তে যা এক সপ্তাহের মধ্যে রবিবার ১৩.৩ শতাংশে গিয়ে পৌঁছেছে। যেখানে দেশের গড় পজিটিভিটির হার ১০ শতাংশের আশেপাশে। ক্রমবর্ধমান এই পজিটিভিটির হারই এখন প্রধান উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের কাছে।

ক্রমশ দ্রুত হারে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায়, কমেছে সুস্থতার হারও। রাজ্যে ধীরে ধীরে ঊর্ধ্বগামী সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা। কাজেই সুস্থতার হার আরো কিছুটা কমে ৬১.৯ শতাংশে এসে দাঁড়াল রবিবার। পরিস্থিতির মোবাকিলা করতে বৃহস্পতিবার থেকেই লকডাউনের পথে হেঁটেছে রাজ্য। বাড়ানো হয়েছে টেস্টের সংখ্যাও। কিন্তু তারপরেও কমানো যাচ্ছে না করোনার সংক্রমণ। পাশাপাশি সাধারণের সচেতনতা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে এবার কী পদ্ধতি গ্রহণ করবে রাজ্য সরকার, সেটাই দেখার...

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More