নতুন শক্তির জন্ম, পদার্থবিদ্যার যুগান্তকারী আবিষ্কারে বদলে যেতে পারে বহু ধারণাই

পদার্থবিদ্যার গবেষণার জগতকে একধাক্কায় কয়েক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিল আইনস্টাইনের আপেক্ষিকতাবাদ। তারপর থেকে মহাবিশ্বে ঘটে চলা বিভিন্ন ঘটনাকে বিশ্লেষণ করা সম্ভব হয়েছে এই যুগান্তকারী তথ্যের ভিত্তিতেই। কিন্তু সম্প্রতি প্রকৃতিতে এক পঞ্চম শক্তির উপস্থিতির সম্ভাবনা জানিয়েছেন হাঙ্গেরির একদল বিজ্ঞানী। মনে করা হচ্ছে, এই আবিষ্কারের পর ওলটপালট হয়ে যেতে পারে এতদিনকার বিভিন্ন ধারণা।

মাধ্যাকর্ষণ, তড়িৎচুম্বকত্ব, দুর্বল নিউল্কিয়ার ফোর্স ও শক্তিশালী নিউক্লিয়ার ফোর্সের বাইরে অন্য কোনো শক্তির উপস্থিতি পদার্থ বিদ্যার জগতে খুঁজে পাওয়া যায়নি। কিন্তু হাঙ্গেরিয়ান অ্যাকাডেমি অফ সাইন্সের নয়া গবেষণায় উঠে এল পঞ্চম শক্তির উপস্থিতি। হিলিয়াম পরমাণু ক্ষয়ে যেতে থাকলে তা থেকে আলোকরশ্মি নির্গত হয়, যার কারণ হিসেবে বিজ্ঞানীরা এই শক্তিকেই দায়ী করেছেন। পদার্থবিদ্যার সমস্ত যুক্তিকে নস্যাৎ করে হিলিয়ামটির ক্ষয়ের সময় তার অণুগুলি ১১৫ ডিগ্রি কোণে ভাগ হয়ে ছিটকে যাচ্ছে। বিজ্ঞানীরা পরবর্তীতে এই পঞ্চম শক্তির নাম দিয়েছেন 'ফোটোফোবিক ফোর্স'।

এই আবিষ্কার যে আগামী দিনে নোবেলের অন্যতম দাবিদার, তা মনে করছেন অনেকেই। পদার্থবিদ্যার এই গবেষণা আগামীতে আরও অনেক অজানা তথ্যকে সামনে নিয়ে আসবে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।