পিছোল মুক্তি, মাত্র ৪ দিনের শর্তে মাল্টিপ্লেক্সে সুযোগ 'রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত'র

গতকালই জাতীয় পুরস্কার জয়ী চলচ্চিত্র প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্য পরিচালক ফেসবুকে জানিয়েছিলেন, তাঁর আসন্ন ছবি ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’-র ভাগ্যে জুটেছে মাত্র ৬টি সিনেমাহল। এর মধ্যে, কলকাতায় একটিও হল পাননি পরিচালক। সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ২০ সেপ্টেম্বর। প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্যের পোস্টের পর, প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। অনেকেই বিগ হাউসের চক্রান্তের ইঙ্গিতও করেন। এমন পরিস্থিতিতেই, পিছোল সিনেমাটির মুক্তির তারিখ।

আরও পড়ুন
পরশু মুক্তি, জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালকের সিনেমা হল পেল না খোদ কলকাতায়

আজ বিকেলে একটি ফেসবুক পোস্টে প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে এক মাল্টিপ্লেক্স চেইনের প্রোগ্রামিং হেডের সঙ্গে কথা হয়েছে। প্রস্তাব অনুযায়ী, সিনেমাটি যদি ২৭ সেপ্টেম্বর মুক্তি পায়, তাহলে অবনী মল, যশোর রোড, সাউথ সিটি, হাইল্যান্ড পার্ক, সিটি সেন্টার ওয়ান ও টু, লেক মল, মধ্যমগ্রাম স্টার মল – এই মাল্টিপ্লেক্সগুলিতে প্রাইম টাইমে ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ দেখানোর ব্যবস্থা হবে। এতে একটি সমস্যার সুরাহা হল। কলকাতার দর্শকরা এবার কলকাতাতেই একাধিক জায়গায় দেখতে পাবেন সিনেমাটি।

পাশাপাশি দেখা দিয়েছে আরেকটি সমস্যাও। প্রথম চার দিনের মধ্যে, যদি প্রতিটা শো-তে ৫০ শতাংশের বেশি ভিড় না হয়, সেক্ষেত্রে সিনেমাটি সরিয়ে নেওয়া হবে মাল্টিপ্লেক্স থেকে। কেননা পাঁচ দিনের মধ্যেই পুজোর সপ্তাহ শুরু হয়ে যাবে এবং একটি বড় বাজেটের হিন্দি সিনেমা-সহ বেশ কয়েকটি বাংলা সিনেমাও রিলিজ করবে সে-সময়।

এ-ঘটনা জানিয়েই পরিচালকের আহ্বান, উৎসাহী দর্শকরা যেন প্রথম চারদিনেই সিনেমাটি দেখে নেন। তাঁর বক্তব্য, ‘আমি একটা কথাই ভালো করে বুঝেছি আমাদের ছবি যদি প্রথম চারদিনের মধ্যে না দেখেন তাহলে আর বড় পর্দায় দেখতে পাবেন না।’ অবশ্য তিনি আশাবাদী যে, সিনেমার যদি জোর থাকে, চারদিনের বেশিই হলে থাকবে ছবিটি।

অফিশিয়ালি, আপাতত বরাদ্দ হল মাত্র চার দিন। মুক্তির তারিখ পিছিয়ে কলকাতার দর্শকদের জন্য এই ব্যবস্থায় খুশি অনেকেই। বিগ বাজেটের সিনেমার সঙ্গে লড়াই করে প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য্যের ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ মাল্টিপ্লেক্সে টিকিয়ে রাখাই এখন লক্ষ্য।

More From Author See More

Latest News See More