৪,০০০ বছর আগে, ব্যাবিলনে শুরু হয়েছিল নববর্ষ উদযাপন

আবারও চলে এল একটা নতুন বছর। নানা জায়গায় চলছে সেলিব্রেশন, পিকনিক, আতসবাজির খেলা। যে যার মতো স্বাগত জানাচ্ছে নতুন বছরকে। শুধু কি আজকে? বহু বছর ধরে এমন উদযাপন দেখে আসছে পৃথিবী। আজ থেকে ৪ হাজার বছর আগেও নতুন বছরকে স্বাগত জানাত বিভিন্ন মানুষেরা। তাঁদের নানা আচার, নানা দিন— সমস্ত কিছুই ইতিহাসের দলিল হয়ে থেকে গেছে।

আজ থেকে আনুমানিক ৪ হাজার বছর আগের কথা। প্রাচীন ব্যাবিলনে চলছে মানব সভ্যতার একটা ধারা। সেখানেই প্রথম নতুন বছর নিয়ে উৎসব শুরু হয়। নাম, আকিতু। সুমেরীয় ভাষায় যার অর্থ বার্লি। তবে তাঁদের নতুন বছর ছিল অন্য দিন। মার্চের শেষে যবে দিন আর রাত সমান হয়ে যায়, তখন থেকেই এখানে নববর্ষের শুরু। আকিতু’র সময়, ব্যাবিলনের সমস্ত দেবতার শোভাযাত্রা বের হয় রাস্তায়। সেই সঙ্গে পালিত হত ব্যাবিলনের দেবতা মারডুকের বিজয়োৎসবও পালিত হত।

প্রাচীন রোমানরাও বর্ষবরণ উৎসব করত, কিন্তু এদেরও আজকের মতো নিয়ম ছিল না। এমনকি, ১২ মাসের হিসেবও ছিল না। মোট ১০ মাস আর ৩০৪ দিন ছিল একটি বছরে। কিন্তু পরে নানা সমস্যা হওয়ায় জুলিয়াস সিজার চালু করলেন জুলিয়ান ক্যালেন্ডার। যার কেন্দ্রে ছিল সূর্য। প্রসঙ্গত, এখনকার গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের খুব কাছাকাছিই ছিল এই জুলিয়ান ক্যালেন্ডার। সিজারই প্রথম পয়লা জানুয়ারি থেকে বছর গোনা শুরু করলেন। রোমান দেবতা জানুস, পরিবর্তনের দেবতা— যাকে উৎসর্গ করা হয় এই প্রথম মাসটা।

তবে এই পয়লা জানুয়ারি থেকে বছর শুরু করাও মধ্যযুগে কিছু সময় বন্ধ করা হয়। পরিবর্তে ২৫ ডিসেম্বরকে করার ভাবনা বলা হয়। বলা ভাল, চিরস্থায়ী হয়নি। ১৫৮২ সালে গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারকে নতুনভাবে তৈরি করার পর আবার স্বমহিমায় ফিরে আসে পয়লা জানুয়ারি।

More From Author See More

Latest News See More