‘জিন্দেগি ক্যায়সি হ্যায় পহেলি হায়’, উত্তর না দিয়েই চলে গেলেন গীতিকার যোগেশ গৌড়

হিন্দি সঙ্গীতজগতে নক্ষত্রপতন। ৭৭ বছর বয়সে চলে গেলেন প্রবাদপ্রতিম গীতিকার যোগেশ গৌড়। মুম্বাইয়ের গোরেগাঁও-তে নিজের বাড়িতেই আজ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন। সত্তরের দশকে একের পর এক হিট হিন্দি গানের সুরে কথা বসিয়েছিলেন তিনি। আনন্দের ‘জিন্দেগি ক্যায়সি হে পহেলি হায়’ থেকে ‘কঁহি দূর যব দিন ঢল যায়ে’। অনবদ্য কথার খেলায় ভাসিয়েছিলেন শ্রোতাদের। সময় পেরোলেও বয়স বাড়েনি গানগুলির আজও।

‘সখী রবিন’ সিনেমা হাত ধরেই ১৯৬২ সালে সিনেমার জগতে প্রথম গান লেখা তাঁর। তারপর হৃষীকেশ মুখোপাধ্যায় এবং বাসু চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে একাধিক কাজ করেছেন তিনি। ছোটি সি বাত, রজনীগন্ধা, মানজিল, বাতো বাতো মে-র মতো সিনেমায় উপহার দিয়েছেন একের পর এক জনপ্রিয় গান। 

২০১৮ সালে দীর্ঘ ১২ বছর পরে সঙ্গীত লেখার কাজে ফিরে এসেছিলেন তিনি। হরিষ ভ্যাসের ‘আঙ্গরেজি মেই কেহেতে হেঁ’-র জন্যই কলম ধরেছিলেন আবার। তাঁর লেখা গান ‘পিয়া মো সে রুঠ গায়ে’-তে কণ্ঠ দিয়েছিলেন শান।

এছাড়াও একাধিক টিভি শো এবং আধুনিক সঙ্গীতের কাজ করেছিলেন তিনি। তবে এই যুগের সঙ্গীতের কথার ওপরে অভিমান ছিল তাঁর। অভিযোগ করেছিলেন, এই যুগের সঙ্গীতের কথায় দীর্ঘদিন টিকে থাকার মতো উপাদানের অভাব রয়েছে কোথাও।

যোগেশ গৌড়ের মৃত্যুতে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে সঙ্গীতজগতে, বলিউডেও। আশা ভোঁসলে দুঃখ প্রকাশ করেন তাঁর মৃত্যুসংবাদে। ট্যুইট করেন লতা মঙ্গেশকর-ও। হিন্দি সঙ্গীতের স্বর্ণযুগের দিনও সত্যিই যেন এভাবেই ধীরে ধীরে ঢলে পড়ছে অস্তাচলে...

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More