দূষণ কমলেও সারবে না পরিবেশের এতদিনকার ক্ষত, আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের

করোনায় থমকে আছে মানুষের কাজকর্ম। যান চলাচল কমে গেছে অনেকটা; কারখানাও বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে পরিবেশ নিজের প্রাণ ফিরে পাচ্ছে। চারিদিকে সেটাই দেখতে পাচ্ছি আমরা। কিন্তু এসবই সাময়িক। কিন্তু বিগত কয়েক দশকে জলবায়ুর যে সাংঘাতিক ক্ষতি হয়েছে, তা অপরিবর্তনীয়। এমন কথাই আমাদের আরও একবার মনে করিয়ে দিলেন বিশেষজ্ঞরা।

সম্প্রতি ওয়ার্ল্ড মেটেরোলজিকাল অরগানাইজেশন বা ডব্লিউএমও-র তরফ থেকে এমন কথাই স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হল। সেখানকার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে, করোনার এমন সময় কারখানা বন্ধ থাকার জন্য পরিবেশ সত্যিই নতুন করে নিজেকে মেরামত করছে। পশুপাখিরাও আনন্দে। বাতাসে দূষিত কণা ও কার্বনের পরিমাণ এক ধাক্কায় ছয় শতাংশ কমে গেছে। অন্যান্য সময় অতিরিক্ত দূষণের ফলে বেশি দূরের জিনিস দেখতে সমস্যা হত। এখন এসব কিচ্ছু নেই। রোগের আকালেও, খোলা হাওয়ায় শ্বাস নিচ্ছে সবাই।

এইসবই অত্যন্ত ভালো খবর। স্বীকার করে নিচ্ছেন ডব্লিউএমও-র বিশেষজ্ঞরাও। সেইসঙ্গে এই কথাটাও বলে দিচ্ছেন, এসবই সাময়িক। কারণ এই লকডাউন চিরন্তন নয়। একদিন না একদিন তো উঠবেই। তখন আবার ফিরে আসবে দূষণ। সবচেয়ে বড়ো কথা হল এই, কার্বন নিঃসরণ এত কমে গেছে এখন, কারখানা একবার খুললে সেটাই বেড়ে যাবে অনেকটা। এছাড়াও এতদিনের নানা ক্রিয়াকলাপের ফলে পরিবেশ ও জলবায়ুর যে ক্ষতি হয়েছে, সেটাকে পূরণ করাএই মুহূর্তে খুব মুশকিল। তবে করোনার এই কটা মাসে পরিবেশের যে বদল হয়েছে, সেখান থেকেও আমরা শিক্ষা নিতে পারি।

More From Author See More

Latest News See More