ডেটা ম্যানেজমেন্টের অগ্রগতিতে চাই মহিলাদেরও, বার্তা প্র্যাক্সিস বিজনেস স্কুলের

ডেটা সায়েন্স (Data Science)  বা তথ্যবিজ্ঞান, বিষয়টির সঙ্গে এখন অনেকেই পরিচিত। তবে আজ থেকে ১০ বছর আগেও এই বিষয়টি নিয়ে স্নাতকোত্তর স্তরে পড়াশোনার কোনো ব্যবস্থা ছিল না আমাদের দেশে। ২০১১ সালে দেশের প্রথম ডেটা সায়েন্সের স্নাতকোত্তর পাঠক্রম চালু করেছিল প্র্যাক্সিস বিজনেস স্কুল (Praxis Business School)। তারপর এক দশক কেটে গিয়েছে। বর্তমানে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় পাঠক্রমগুলির একটি ডেটা সায়েন্স। আর এই এক দশকের সাফল্যকে নতুন করে স্মরণ করতেই গত ৩০ নভেম্বর আয়োজিত হল একটি বিশেষ অনুষ্ঠান। ‘ডিকেড অফ ডেটা সায়েন্স’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তির উন্নতির পাশাপাশি উঠে এল নারীর ক্ষমতায়নের প্রসঙ্গটিও। এই উদ্দেশ্যে বেশ কিছু পরিকল্পনা এবং প্রকল্পের কথাও জানালেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা চরনপ্রীত সিং।

মঙ্গলবারের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রথম প্যারালিম্পিক পদকজয়ী অ্যাথলিট দীপা মালিক। তাঁকে পাশে পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই আপ্লুত সংস্থার কর্তারা। চরনপ্রীতের কথায়, দীপা মালিক বর্তমানে নারীর ক্ষমতায়নের প্রশ্নে দেশের সবচেয়ে বড়ো আইকন। তাই এই অনুষ্ঠানে তাঁর উপস্থিতি অনুষ্ঠানের গুরুত্বকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

পাশাপাশি তিনি জানান, দেশের ৫০ শতাংশ নাগরিককে ছাড়া, অর্থাৎ মহিলাদের ছাড়া ডেটা ম্যানেজমেন্টের মতো উদীয়মান সম্ভাবনাটির বিকাশ সম্ভব নয়। এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে ‘উইমেন ইন টেক’ নামের একটি বিশেষ স্কলারশিপ প্রোগ্রাম চালু করল প্র্যাক্সিক বিজনেস স্কুল। প্র্যাক্সিসের সমস্ত বিভাগের মহিলা শিক্ষার্থীরাই এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। পাশাপাশি ‘চেঞ্জ ইনিসিয়েটিভস’ নামক একটি এনজিও-র সঙ্গে মিলিতভাবে স্কুলস্তরের ছাত্রীদের ডিজিটাল সাক্ষরতা প্রদানের প্রকল্পও নেওয়া হয়েছে। ‘ক্যাটালিস্ট’ এনজিও-র সঙ্গে মিলিতভাবে মহিলাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পরিকল্পনা চলছে। এই উদ্যোগে সামিল হয়েছে দীপা মালিকের এনজিও ‘হুইলিং হ্যাপিনেস ফাউন্ডেশন’-ও। বিশেষভাবে সক্ষম মহিলাদের মধ্যে এই কর্মযজ্ঞে জুড়ে নেওয়াই এই মেলবন্ধনের উদ্দেশ্য।

২০০৭ সালে কলকাতার অনেকগুলি বেসরকারি কলেজের মধ্যে আরেকটি কলেজ হিসাব গড়ে উঠেছিল প্র্যাক্সিস বিজনেস স্কুল। তবে দেখতে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি হয়ে উঠেছে বাকিদের চেয়ে অনেকটাই আলাদা। ২০১১ সালে ডেটা সায়েন্সে স্নাতকোত্তর পাঠক্রম চালু করা থেকে যে যাত্রার শুরু, ২০১৬ সালে বেঙ্গালুরুতে নতুন ক্যাম্পাসে সেই যাত্রা কিছুটা পূর্ণতা পেয়েছিল। আর এখন ‘অ্যানালিটিক্স ইন্ডিয়া’ পত্রিকার সমীক্ষা অনুযায়ী দেশের সমস্ত ডেটা সায়েন্স কোর্সের মধ্যে প্র্যাক্সিস বিজনেস স্কুল রয়েছে প্রথম স্থানে। প্রথম ৩-এর মধ্যে জায়গা পেয়েছে প্রতিষ্ঠানের আরও দুটি কোর্স। তবে এখনও যাত্রা ফুরায়নি। আর আগামীদিনে এগিয়ে যেতে গেলে মহিলাদের অংশগ্রহন বাড়াতেই হবে। অনুষ্ঠানে সেই বার্তাই দিলেন সংস্থার কর্তারা।

Powered by Froala Editor

More From Author See More

Latest News See More