তিন বছর আগেই মৃত মেয়ে, প্রযুক্তির সাহায্যে তাকে ‘ফিরে’ পেলেন মা

মেয়ে মারা গেছে আগেই। মা কিছুতেই ভুলতে পারছেন না সেই বিচ্ছেদ। অতএব, মৃত মেয়ে আবারও ‘জীবিত’ হয়ে এসে দাঁড়াল তাঁর সামনে। এটুকু শুনে মনে হতেই পারে, কোনো নতুন ভূতুড়ে গল্পের দৃশ্য। কিন্তু এই ‘ভূতুড়ে’ ঘটনাটাই বাস্তবে ঘটেছে। তবে প্ল্যানচেট নয়, আধুনিক ‘ভিআর’ প্রযুক্তি এর পেছনে দায়ী।

সাউথ কোরিয়ার বাসিন্দা জ্যাং জি-সাংয়ের একমাত্র মেয়ে মারা গিয়েছিল আজ থেকে তিন বছর আগে। রক্তের একটি জটিল অসুখ হয়েছিল তাঁর। অনেক চেষ্টা করা হয়, কিন্তু সাত বছরের মেয়েটি আর বাঁচেনি। স্বাভাবিকভাবেই, মা জ্যাং ভেঙে পড়েন। কিন্তু, আশ্চর্যভাবে, মেয়ে মারা যাওয়ার তিন বছর পর তাঁর সামনেই আবার ফিরে আসে। ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি বা ভিআর প্রযুক্তির মাধ্যমে এই কাজটি করা হয়। এর জন্য বিশেষ চশমা পড়তেই জ্যাংয়ের সামনে হাজির হয় তাঁর মৃত মেয়ে। সেই প্রিয় জামাটি পরে, যেন আগের মতোই দাঁড়িয়ে আছে সামনে। যেন কিচ্ছুটি হয়নি! এই সবই প্রযুক্তির হাতযশ। না, তাকে ছোঁয়া যায় না। চেষ্টা করেও পারেননি জ্যাং। কিন্তু তিন বছর পর মেয়েকে দেখে যেমন নিজেকে সামলে রাখতে পারেননি, তেমনই আনন্দিতও হয়েছেন।

প্রধানত আধুনিক ভিডিও গেমের জগতেই এই ভিআর প্রযুক্তির ছড়াছড়ি। তার থেকে বেরিয়ে এসেও যে এর ব্যবহার করা যায়, সেটাই দেখাল এই ঘটনা। হয়ত ভবিষ্যতে আরও নানা ব্যবহার দেখব আমরা। কিন্তু তার সবকিছুই যাতে মানুষের ভালোর জন্য হয়, সেটাই বলছেন সবাই।

More From Author See More

Latest News See More