মহিলাদের অশালীনতাই ধর্ষণের কারণ, মন্তব্য ইমরান খানের

দেশে ক্রমাগত বেড়ে চলেছে ধর্ষণ। কিন্তু তার কারণ কী? কীভাবেই বা সমাধান মিলবে এই সমস্যার? টেলিভিশন লাইভে, ইমরান খানের দিকে এমন প্রশ্নবাণই ছুঁড়ে দিয়েছিলেন দর্শকরা। সাক্ষাৎকারে খোলাখুলি সেই কারণ বাতলালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। দুষলেন মহিলাদের ‘অশালীনতা’-কেই। তাঁদের ‘অশ্লীল’ পোশাকের ব্যবহারই ধর্ষকদের প্রলুব্ধ করছে বলেই অভিযোগ তাঁর।

বুধবার এই সাক্ষাৎকার প্রকাশ পাওয়ার পরেই রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রতিবাদে সোচ্চার হয়ে, অনলাইন পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন কয়েক হাজার মানুষ। দেশের প্রধানমন্ত্রীর মতো একজন ব্যক্তিত্বের থেকে এহেন মন্তব্যকে ‘নিন্দনীয়’ বলে বিঁধেছে পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনও।

বিগত ছ’বছরের পরিসংখ্যান বলছে, পাকিস্তানে ২২ হাজার ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অর্থাৎ, প্রতি ২ ঘণ্টায় একটি করে ধর্ষণ। অথচ তার পরেও বিষয়টিকে এত হালকা করে দেখছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী? গুরুতর এই সামাজিক সমস্যার সমাধান হিসাবে তাঁর উপদেশ, পর্দা ব্যবহার করতে হবে মহিলাদের। ইমরানের অভিমত, পাশ্চাত্যের প্রভাবই নষ্ট করে দিচ্ছে পাকিস্তানের সাংস্কৃতিক ভারসাম্য। সেইসঙ্গে ভারতের দিকেও আঙুল তুলেছেন তিনি। দিল্লিকে ধর্ষণের রাজধানী বলার পাশাপাশি তিনি দাবি করেন, বলিউড সিনেমায় খোলামেলা পোশাকই পাকিস্তানের মহিলাদের উচ্ছৃঙ্খল করে তুলছে আরও। কিন্তু এসবের পরেও শিশুরা কেন শিকার হচ্ছে ধর্ষণের, সেই প্রশ্ন সম্পূর্ণ এড়িয়ে যান ইমরান খান।

এখানেই শেষ নয়, অক্সফোর্ডের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার জানিয়েছেন, বহু আগে থেকেই তিনি ইঙ্গিত পেয়েছিলেন এই সামাজিক অধঃপতনের। লন্ডনে থাকাকালীন তিনি আঁচ পেয়েছিলেন যৌনতা, মাদক এবং রক-এন-রোল ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে চলেছে পাকিস্তানে। দেশে বিবাহবিচ্ছেদের হার ৭০ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ার জন্যেও তিনি কটাক্ষ করেছেন পাশ্চাত্য সংস্কৃতিকেই।

আরও পড়ুন
উত্তরপ্রদেশে প্রতি ৩ ঘণ্টায় একটি ধর্ষণ, বাংলার নারী-সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন আদিত্যনাথ!

তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার মহিলাদের বিরুদ্ধে অযৌক্তিক অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। মহামারীর প্রাদুর্ভাবের জন্য দোষারোপ করেছিলেন মহিলাদের। এমনকি আন্তর্জাতিক মহিলা দিবসের দিন আয়োজিত পদযাত্রাকে তিনি অভিহিত করেছিলেন ‘বিশৃঙ্খলা অভিযান’ হিসাবে। ইমরানের সাম্প্রতিক মন্তব্য আরও একবার উসকে দিল সেই বিতর্কই। আন্তর্জাতিক রিপোর্ট অনুযায়ী পাকিস্তানে মহিলাদের স্বাধীনতা, সম্মান এবং নিরাপত্তা একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছে। আর এই কঠিন পরিস্থিতিতে যেন ধর্ষকদেরই প্রশ্রয় দিয়ে চলেছেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী। পুরো বিষয়টির তীব্র নিন্দায় সরব হয়েছেন পাকিস্তানের বুদ্ধিজীবী ও সমাজকর্মীরা…

আরও পড়ুন
ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচাবে করাল দাঁত, অভিনব ‘রেপ-এক্স’ কন্ডোম আবিষ্কার চিকিৎসকের

Powered by Froala Editor

আরও পড়ুন
ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, নতুন আইন জারি বাংলাদেশে

More From Author See More

Latest News See More